default-image

মিয়ানমারের জান্তা সরকার সাধারণ ক্ষমার আওতায় আজ শুক্রবার ২৩ হাজারের বেশি বন্দীকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছে। সামরিক অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে অং সান সু চির বেসামরিক সরকারকে সম্প্রতি ক্ষমতাচ্যুত করার পর তাঁর অনুগত নেতা–কর্মী এবং নির্বাচনী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ধরপাকড় শুরু করে সেনা–প্রশাসন। এরপর আজ এই বন্দী মুক্তির ঘোষণা দেওয়া হলো।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যম গ্লোবাল নিউ লাইট অব মিয়ানমারের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়, বিভিন্ন বন্দী শিবির ও কারাগার থেকে ২৩ হাজার ৩১৪ জনকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আরও ৫৫ বন্দীকে মুক্তি দেওয়া হবে। দুই মুক্তির আদেশে জান্তাপ্রধান মিন অং হ্লাইং সই করেছেন।

বিজ্ঞাপন

১ ফেব্রুয়ারি ভোরে সু চি ও তাঁর দল এনএলডির শীর্ষস্থানীয় নেতাদের গ্রেপ্তার করে সেনাবাহিনী। এর আগে গত নভেম্বরে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে এনএলডির বিরুদ্ধে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তোলে সেনাবাহিনী।

গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত সু চিকে আর জনসমক্ষে দেখা যায়নি। তবে এনএলডির কর্মকর্তারা বলেছেন, তিনি গৃহবন্দী। জান্তা প্রশাসন জানিয়েছে, তাঁর স্বাস্থ্য ভালো রয়েছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন