default-image

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। সংগঠনটি বলছে, ২০২০ সালে বিশ্বে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার হারে শীর্ষে থাকা প্রথম পাঁচটি দেশের চারটিই মধ্যপ্রাচ্যের।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, এই চারটি দেশ হলো ইরান, মিসর, ইরাক ও সৌদি আরব। বিশ্বের মোট মৃত্যুদণ্ডের ৮৮ শতাংশ ঘটেছে এই চারটি দেশে। গত বছর বিশ্বের মোট ৪৮৩টি মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলছে, এর মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে, কোভিড–১৯ মহামারির মধ্যেও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো মৃত্যুদণ্ড দিচ্ছে এবং এটি নির্দয় বিচারব্যবস্থার পরিচায়ক।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী মৃত্যুদণ্ডের দিক থেকে এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে কম সংখ্যা এবার। তবে এই হিসাবে চীনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। বলা হয়ে থাকে, চীনে প্রতি বছর হাজারো মানুষকে অপরাধী বিবেচনায় মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়ে থাকে। তবে এ বিষয়ে দেশটি প্রকৃত হিসাব কখনোই প্রকাশ করে না।

বিজ্ঞাপন

আজ বুধবার অ্যামনেস্টির প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালে মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকায় মোট ৪৩৭টি মৃত্যুদণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৯ সালে এই সংখ্যাটি ছিল ৫৭৯। সেই হিসাবে এই দুই অঞ্চলে মৃত্যুদণ্ডের পরিমাণ কমেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, সৌদি আরবে মৃত্যুদণ্ডের পরিমাণ আগের বছরের তুলনায় ৮৫ শতাংশ কমেছে। আর ইরাকে কমেছে ৫০ শতাংশ। তবে মিসরে মৃত্যুদণ্ডের পরিমাণ ৩০০ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ায় মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চল বিবেচনায় মৃত্যুদণ্ডের মোট সংখ্যায় তার কোনো প্রভাব পড়েনি। মিসরে গত বছর মোট ১০৭ জনের মৃত্যুদণ্ড হয়েছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন