বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইরান–সমর্থিত সশস্ত্র হুতি বিদ্রোহীরা ২০১৪ সালে ইয়েমেনের রাজধানী সানা দখল করে নেওয়ার পর দেশজুড়ে বিশেষত নারীদের নৈতিকতা চর্চার বিষয়টি মেনে চলার ওপর জোর দিচ্ছে।

সানার একটি আদালত ইনতিসার আল–হাম্মাদির বিরুদ্ধে ওই রায় দেওয়ার পর হুতি বিদ্রোহীদের বার্তা সংস্থা ‘সাবা’ স্থানীয় সময় রোববার এই খবর প্রকাশ করে।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের ইয়েমেনি গবেষক আফরাহ নাসার এই রায়ের নিন্দা জানিয়ে এক টুইট বার্তায় বলেন, এই সাজা অন্যায্য এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। বিভিন্ন মানবাধিকার গোষ্ঠী ও হাম্মাদির আইনজীবীর দাবি, জুলাইয়ে সানার একটি কারাগারে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি।

ইয়েমেনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাম্মাদি বেশ জনপ্রিয়। তাঁর আইনজীবীর দাবি, তুমুল জনপ্রিয়তার কারণেই তাঁকে ওই অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়।

ইনতিসার আল-হাম্মাদির বাবা ইয়েমেনি ও মা ইথিওপীয়। তিনি ঐতিহ্যবাহী পোশাক জিন্স ও লেদার জ্যাকেট পরে অনলাইনে কয়েক ডজন ছবি পোস্ট করেন। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের তথ্য অনুযায়ী, চার বছর ধরে মডেল হিসেবে কাজ করছেন হাম্মাদি। গত বছর ইয়েমেনের দুটি টিভি সিরিজেও অভিনয় করেন তিনি।

লন্ডনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল মে মাসে অভিযোগ করে, গ্রেপ্তারের পর হাম্মাদিকে ‘চোখ বেঁধে জিজ্ঞাসাবাদ এবং শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়। এ ছাড়া মাদক গ্রহণ ও যৌনপেশায় জড়িত থাকাসহ বেশ কয়েকটি অপরাধ স্বীকার করতে বাধ্য করা হয়েছিল তাঁকে।’

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন