রুশ ইতিহাসবিদের ব্যাগে প্রেমিকার হাত

বিজ্ঞাপন
default-image

রাশিয়ার স্বনামধন্য ইতিহাসবিদ ওলেগ সকোলভ (৬৩) প্রেমিকাকে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছেন। আইনজীবী বলছেন, সকোলভের পিঠে ঝোলানো ব্যাগে তাঁর প্রেমিকার একটি হাত পাওয়া গেছে। ওলেগ সকোলভ মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। তিনি নদীতে পড়ে গিয়েছিলেন। তিনি হত্যার পর প্রেমিকার দেহের বিভিন্ন অংশ নষ্ট করে ফেলার চেষ্টা করেছিলেন।

রুশ গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর বলছে, পুলিশ এরপর সেন্ট পিটার্সবার্গে ওলেগ সকোলভের বাড়িতে তাঁর প্রেমিকা আনাসতাসিয়া ইয়েসচেঙ্কোর (২৪) শিরশ্ছেদ করা লাশ উদ্ধার করেছে।

default-image

সকোলভ নেপোলিয়ন বিশেষজ্ঞ। তিনি ফ্রান্সিস এল জিয়ন ডি’অনার সম্মানে ভূষিত। সকোলভের আইনজীবী আলেকসান্দর পচুইয়েভ এএফপিকে বলেন, সকোলভ তাঁর দোষ স্বীকার করেছেন। তিনি তাঁর কাজের জন্য অনুতপ্ত। এখন তিনি বিচারপ্রক্রিয়াকে সহায়তা করছেন।

সকোলভ পুলিশকে বলেন, বাগবিতণ্ডার সময় সকোলভ তাঁর প্রেমিকাকে হত্যা করেন। এরপর তিনি তাঁর মাথা, হাত ও পা আলাদা করে ফেলেন।

পচুইয়েভ বলেন, সকোলভকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাঁর শরীরের তাপমাত্রা খুবই কম। মানসিক চাপ থেকে এমনটা হতে পারে।

default-image

ইয়েশচেঙ্কো রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চল থেকে সেন্ট পিটার্সবার্গে পড়তে এসেছিলেন। মৃত্যুর সময় তিনি স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী ছিলেন।

পরিচিত একজন রিয়া বার্তা সংস্থাকে জানান, ইয়েশচেনকো শান্ত ও মিষ্টি স্বভাবের ছিলেন। তিনি পড়াশোনায় খুব ভালো ছিলেন। সবাই ইতিহাসবিদের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা জানতেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন