বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কায় জরুরি নিত্যপণ্য আমদানি করতে বৈদেশিক মুদ্রার মজুত সংকট শুরুর পর থেকেই হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ করছেন। প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগ দাবি করছেন তারা। কিন্তু প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া ও তাঁর ভাই প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে এখনো পদত্যাগ করেননি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী ছাড়া বাকি সব মন্ত্রী পদত্যাগ করেন। গত সোমবার মাহিন্দা রাজাপক্ষের নেতৃত্বে নতুন মন্ত্রিসভার নাম ঘোষণা করেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে। পরদিন মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার প্রধান খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান জ্বালানির দাম প্রায় ৬৫ দাম বাড়িয়ে দেওয়ার পরে বেশ কয়েকটি এলাকায় বিক্ষোভ হয়েছে।

বিবিসি শ্রীলঙ্কায় তাদের প্রতিনিধির বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে জানিয়েছে, জ্বালানির দাবিতে রামাবুক্কানা শহরের মানুষজন প্রায় ১৫ ঘণ্টা ধরে বিক্ষোভ করছিলেন।

পুলিশের মুখপাত্র নিহাল তালদুয়া বিবিসিকে বলেছেন, ‘বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশকে গুলি করতে হয়েছে। তাঁরা টায়ার জ্বালিয়েছিল বলেই তাদের ছত্রভঙ্গ করতে গুলি করতে হয়।’ কর্তৃপক্ষের দাবি, বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ও অন্যান্য বস্তু ছুড়ে মারায় বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন।

পুলিশের গুলিতে আহত ১১ বিক্ষোভকারীর মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। কেগালে টিচিং হাসপাতালের পরিচালক মিহিরি প্রিয়ঙ্গিনী বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, যে ব্যক্তি মারা গেছেন তাকে সম্ভবত গুলি করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমাদের ধারণা গুলিতে আহত হয়েছেন। ময়নাতদন্তের পরই নিশ্চিত হওয়া যাবে।’

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন