default-image

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকের সঙ্গে একটা সমঝোতায় যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার। প্রস্তাবিত আইনটিতে সংশোধনী আনা হচ্ছে। এতে আশ্বস্ত হয়ে ফেসবুকও অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকদের জন্য সংবাদ আধেয় (নিউজ কনটেন্ট) দেখার বাধা তুলে নিচ্ছে। অস্ট্রেলিয়া সরকারের বরাত দিয়ে আজ মঙ্গলবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

অস্ট্রেলিয়ায় প্রস্তাবিত একটি নতুন আইনকে কেন্দ্র করে সরকারের সঙ্গে বিরোধের জেরে গত বৃহস্পতিবার দেশটিতে নিউজ কনটেন্ট ব্লক করে দেয় ফেসবুক।

প্রস্তাবিত আইনটিতে নিউজ কনটেন্ট প্রকাশের জন্য অস্ট্রেলিয়ার সংশ্লিষ্ট সংবাদমাধ্যম প্রতিষ্ঠানকে অর্থ দিতে ফেসবুকের মতো প্রতিষ্ঠানের বাধ্যবাধকতার বিধান রয়েছে। আইনটির বিরোধিতা করছে ফেসবুক।

অস্ট্রেলিয়ার বাজার প্রতিযোগিতা নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠানের ভাষ্য, প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো ও প্রকাশকদের মুনাফায় লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড প্রতিষ্ঠা করাই এই আইনের লক্ষ্য। অস্ট্রেলিয়া সরকারের পক্ষ থেকেও একই কথা বলা হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার অর্থমন্ত্রী জোস ফ্রাইডেনবার্গ আজ এক বিবৃতিতে বলেন, প্রস্তাবিত আইনটিতে সংশোধনী আনা হবে।

বিজ্ঞাপন

জোস ফ্রাইডেনবার্গ বলেন, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ায় ফেসবুকে নিউজ কনটেন্টের ওপর থাকা ব্লক উঠে যাবে।

ব্লক তুলে নিলে অস্ট্রেলিয়ার ব্যবহারকারীরা ফেসবুকে সংবাদ আধেয় দেখতে পাবেন। শেয়ার করতে পারবেন। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়ার স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো তাদের ফেসবুক পেজে খবর শেয়ার বা লিংক পোস্ট করতে পারবে।

ফেসবুকের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, তারা অস্ট্রেলিয়ায় নিউজ কনটেন্ট দেখাবে।
ফেসবুকের পক্ষ থেকে আজ বলা হয়, অস্ট্রেলিয়া সরকারের সঙ্গে তাদের আলোচনা হয়েছে। এই আলোচনায় তাদের আশ্বস্ত করা হয়েছে।

ফেসবুকের ভাষ্য, তারা একটি সমঝোতায় উপনীত হয়েছে। এই সমঝোতার আলোকে তারা তাদের পছন্দের ভিত্তিতে সংবাদ প্রকাশকদের সহায়তা দিতে পারবে। এই সংবাদ প্রকাশকদের মধ্যে ছোট ও স্থানীয় প্রকাশকেরা থাকবেন।

অস্ট্রেলিয়ায় সংবাদ আধেয় ব্লক করে বিশ্বজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়ে ফেসবুক। সমালোচকদের কেউ কেউ ফেসবুকের আচরণকে ‘বুলিং’ হিসেবে অভিহিত করেন।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন