বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে যাওয়ার পর পশ্চিমা দেশগুলো সেখান থেকে দূতাবাস সরিয়ে নিলেও পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য তুরস্ক তা করেনি।

বরং তুরস্ক অন্য দেশগুলোকে তালেবানের সঙ্গে যুক্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে আসছে।

একই সঙ্গে তুরস্ক বলছে, দেশটিতে অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার গঠিত হলে তারা তালেবানের সঙ্গে কাজ করবে।

আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আবদুল কাহার বালখি টুইটারে বলেছেন, ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুত্তাকিসহ অন্য মন্ত্রীরা আঙ্কারায় সাহায্য, অভিবাসন, বিমান যোগাযোগ ও বাণিজ্য নিয়ে আলোচনা করবেন।

তুরস্কের কূটনৈতিক সূত্রও তাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আফগান প্রতিনিধি দলের বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কাবুল বিমানবন্দর পরিচালনা ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পুনরায় চালুর জন্য কাতারের সঙ্গে কাজ করছে তুরস্ক।

গত সোমবার মুত্তাকি বিশ্ব সম্প্রদায়ের কাছে ভালো সম্পর্ক রক্ষার জন্য আহ্বান জানান। কিন্তু আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মূল উদ্বেগের জায়গা মানবিক বিষয়গুলো নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।

এর আগে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, তিনিসহ অন্য কয়েকটি দেশের মন্ত্রীরা তালেবানের সঙ্গে আলোচনার জন্য আফগানিস্তান সফরের পরিকল্পনা করছেন। এরপরই তালেবানের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে তাঁর এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন