বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত বুধবার স্পিন বোলডাক সীমান্ত ক্রসিংটি দখল করে তালেবান। আফগান সেনাদের হটিয়ে তালেবানদের দখল করা সীমান্ত ক্রসিংগুলোর মধ্যে স্পিন বোলডাকই সর্বশেষ।
সীমান্ত ক্রসিংটিতে আফগান সেনাদের সঙ্গে তালেবান যোদ্ধাদের রাতের লড়াই নিয়ে মোল্লা মুহাম্মদ হাসান নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে কথা হয়েছে এএফপির। তিনি নিজেকে তালেবান যোদ্ধা পরিচয় দিয়েছেন। মুহাম্মদ হাসান বলেন, ‘সংঘাতে আমাদের একজন যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও কয়েক ডজন।’

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্পিন বোলডাক সীমান্ত ক্রসিংটি ব্যবহার করে সরাসরি পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে যাওয়া যায়। গতকাল বৃহস্পতিবার এই সীমান্ত দিয়ে প্রদেশটির চমন শহর থেকে শতাধিক মানুষ আফগানিস্তানে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় তাদের সঙ্গে পাকিস্তান সীমান্তরক্ষীদের সংঘর্ষ হয়। বেলুচিস্তানে তালেবানের অনেক সমর্থক অবস্থান করেন। আফগানিস্তানে তালেবানদের সহায়তা করতে নানা সময়ে দেশটিতে আসা-যাওয়া করেন তাঁরা।

এদিকে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে তালেবানদের সহায়তা করার অভিযোগ উঠেছে। আফগানিস্তানের ভাইস প্রেসিডেন্ট বলেছেন, পাকিস্তান সেনাবাহিনী কিছু এলাকায় তালেবানকে বিমান সহায়তা দিচ্ছে। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, নিজেদের সৈন্য ও জনগণকে সুরক্ষিত করতে সীমান্তের মধ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিচ্ছে তারা।

চলমান সংঘাতের মধ্যে রাজধানী ইসলামাবাদে আফগানিস্তান বিষয়ে বিশেষ আলোচনা হবে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে পাকিস্তান। তবে ওই আলোচনায় ডাকা হয়নি কোনো তালেবান নেতাকে। আফগান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার কথা রয়েছে কাতারের রাজধানী দোহাতেও। বেশ কয়েক মাস ধরে আলোচনাটি স্থগিত হয়েছিল। তবে তা শিগগিরই আলোর মুখ দেখতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। ওই আলোচনার বিষয়টি নিশ্চিত হলে ইসলামাবাদে আসন্ন বৈঠক না–ও হতে পারে বলে আফগান সরকারকে জানানো হয়েছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানে তালেবান তিন মাসের অস্ত্রবিরতির প্রস্তাব রেখেছে বলে জানিয়েছেন নাদের নাদেরি নামের আফগান সরকারের একজন মধ্যস্থতাকারী। এর বিনিময়ে গোষ্ঠীটির সাত হাজার বন্দীকে মুক্তির শর্ত দিয়েছে তারা। পাশাপাশি জাতিসংঘের কালো তালিকা থেকে শীর্ষ নেতাদের নাম সরিয়ে দেওয়ার শর্তও দিয়েছে তালেবান।

মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনীর সদস্যরা আফগানিস্তান ছাড়তে শুরু করার পর থেকে আফগানিস্তানে সংঘাত বেড়েছে। তালেবান চাইছে পশ্চিমা-সমর্থিত আফগান সরকারকে উৎখাত করতে। আফগানিস্তানের বেশির ভাগ অঞ্চল দখলের দাবি করেছে তালেবান।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন