সু চির কারামুক্তি চেয়ে জান্তাকে চিঠি আসিয়ানের দূতের

অং সান সু চি
ছবি: রয়টার্স ফাইল ছবি

শান্তিতে নোবেলজয়ী গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চিকে কারাগারে আটকে না রাখতে মিয়ানমারের সেনা সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ান। স্থানীয় সময় আজ সোমবার জোটটির মিয়ানমারবিষয়ক বিশেষ দূত ও কম্বোডিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রাক সোখন এ আহ্বান জানান। খবর রয়টার্সের

কম্বোডিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেন, তাঁদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রাক সোখন আগামী বুধবার থেকে মিয়ানমারে দ্বিতীয় সফর শুরু করবেন। ১০ সদস্যবিশিষ্ট আসিয়ানের সঙ্গে জান্তা সরকারের শান্তি প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকারের অংশ হিসেবে এ সফর হবে।

গত বছর সেনা অভ্যুত্থানের পর আটক হন সু চি। কমপক্ষে ২০টি অপরাধের ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে বিচার শুরু হয়। সু চি তাঁর বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। ৭৭ বছর বয়সী এ নেত্রীকে অজ্ঞাত স্থানে আটকে রাখা হয়েছে।

মিয়ানমারের জান্তা বরাবর লেখা এক চিঠিতে সুচির প্রতি কৃপা করার অনুরোধ জানিয়েছেন প্রাক সোখন। তিনি লিখেছেন, ‘দেশকে স্বাভাবিকতায় ফিরিয়ে নিতে এবং শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক সমাধানের মধ্য দিয়ে জাতীয় সমন্বয় প্রতিষ্ঠায় অং সান সু চি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। আর তা মিয়ানমারের অনেকের কাছে ও আন্তর্জাতিকভাবে সমাদৃত।’

চিঠিতে তিনি আরও লিখেছেন, এক পক্ষকে বাদ দিয়ে সফল শান্তি প্রক্রিয়া সম্ভব নয়। যত জটিলই হোক না কেন, সংঘাতের শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক সমাধান জরুরি। এ প্রক্রিয়ায় যুক্ত সবাইকে নিজেদের রাজনৈতিক ক্ষেত্র থেকে কথা বলার সুযোগ দিতে হবে।

এর আগে মার্চে মিয়ানমার সফর করেন প্রাক সোখন। তাঁর এ সফরকে ব্যর্থ বলে উল্লেখ করেছিলেন অধিকারকর্মীরা। তাঁদের অভিযোগ, সোখন জান্তার পক্ষে কথা বলেছেন এবং বিরোধীদের এড়িয়ে গেছেন। সোখন বলেছিলেন সমালোচনার জায়গাটি তিনি বুঝতে পারছেন।