জেদ্দায় ফরাসি দূতাবাসে গত ২৯ অক্টোবর এক নিরাপত্তারক্ষীর ওপর ছুরি নিয়ে হামলা চালানো হয়েছিল
জেদ্দায় ফরাসি দূতাবাসে গত ২৯ অক্টোবর এক নিরাপত্তারক্ষীর ওপর ছুরি নিয়ে হামলা চালানো হয়েছিল ফাইল ছবি: এএফপি

সৌদি আরবের জেদ্দায় বোমা হামলায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে নিহতদের স্মরণে এক সমাধিস্থলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আজ বুধবার এই বোমা হামলা চালানো হয়। এই আয়োজনে বিদেশি কূটনীতিকেরাও উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের কেউ আহত হয়েছেন কি না, তা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওই অনুষ্ঠানে ইউরোপীয় অনেক কূটনীতিক অংশ নিয়েছিলেন। হামলায় ঠিক কতজন আহত হয়েছেন, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ফরাসি সরকার এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছে, এটি একটি ‘কাপুরুষোচিত হামলা’।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই হামলার বিষয় এখনো কোনো মন্তব্য করেনি সৌদি কর্তৃপক্ষ। হামলার ঘটনার বিষয়টিও তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করেনি দেশটি।

বিজ্ঞাপন

গত ২৯ অক্টোবর জেদ্দায় ফরাসি দূতাবাসে এক নিরাপত্তারক্ষীর ওপর ছুরি নিয়ে হামলা চালানো হয়েছিল। এক সৌদি নাগরিক এই হামলা চালিয়েছিলেন। ওই একই দিন ফ্রান্সের নিস শহরে ছুরি নিয়ে হামলা চালিয়ে তিন ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছিল।
এদিকে আজ বুধবারের বোমা হামলার কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে ছড়িয়ে পড়েছে। সেসব ছবিগুলোতে আহতদের চিকিৎসা দেওয়ার দৃশ্য ও ঘটনাস্থলে রক্ত দেখা গেছে। সৌদিভিত্তিক এক সাংবাদিক এই ছবি প্রকাশ করেছেন। ক্ল্যারেন্স রদ্রিগেজ নামের ওই সাংবাদিক লিখেছেন, ‘জেদ্দায় অমুসলিমদের এক সমাধিস্থলে হামলা চালানো হয়েছে। অনুষ্ঠানে ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড ও ব্রিটেনের কূটনীতিকেরা উপস্থিত ছিলেন।’

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের দূতাবাস সৌদি আরবে অবস্থানরত ফরাসি নাগরিকদের সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের অনুরোধ জানিয়েছে। ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, এই হামলার বিষয়ে অধিকতর তথ্য সংগ্রহের জন্য এবং হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের জন্য তারা সৌদি কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0