বিচিত্র খবর

বিচিত্র

হারানো ফোনে বানরের সেলফি

বিজ্ঞাপন
default-image

রাতে ঘুমানোর সময় পাশেই ছিল স্মার্টফোনটি, কিন্তু সকালে ঘুম ভেঙে আর তা পাওয়া গেল না। অনেক খোঁজাখুঁজির পর ধারণা হলো, মুঠোফোনটি হয়তো চুরি হয়েছে। পরদিন ফোনটি পাওয়া গেল বাড়ির কাছের একটি জঙ্গলে। এরপর মুঠোফোনের ফটো গ্যালারি খুলে তো মালিকের চোখ ছানাবড়া। পুরো গ্যালারিই যেন ভরে রয়েছে একটি বানরের সেলফি আর ভিডিওতে।

ঘটনাটি ঘটেছে মালয়েশিয়ার জহোর প্রদেশে বাতু পাহাত এলাকায় গত শনিবার। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, স্মার্টফোনটির মালিক জাক্রিদজ রোদজি (২০)। শনিবার বেলা ১১টার সময় তিনি ঘুম ভেঙে দেখেন, তাঁর মুঠোফোনটি নেই। কিন্তু ঘরে চোরের আর কোনো চিহ্ন পাওয়া গেল না। তিনি জানান, রোববার বিকেলের আগপর্যন্ত ফোনের কোনো হদিসই পাননি তিনি। ওই সময় বাড়ির বাইরে একটি বানরকে দেখে সন্দেহ হয় তাঁর বাবার। তিনি জাক্রিদজ রোদজির মুঠোফোন নম্বরে ফোন করেন। বাড়ির বাগানঘেঁষা জঙ্গল থেকে রিংটোনের শব্দ শুনে আবার অনুসন্ধান শুরু হয়। মাত্র কয়েক পা দূরেই একটি পামগাছের নিচে পড়ে ছিল ফোনটি।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রিয় স্মার্টফোন ফিরে পেয়ে সে সময় জাক্রিদজ রোদজির আনন্দ দেখে কে। যদিও ফোনটি ছিল কাদামাটিতে মাখামাখি। তবে তাতে ফোনের তেমন একটা ক্ষতি হয়নি। এ সময় জাক্রিদজ রোদজির চাচা মজা করেই বলেন, ‘ফোনের গ্যালারি দেখ তো। চোরের ছবি হয়তো থাকতে পারে সেখানে।’ তিনি মজা করে বললেও জাক্রিদজ রোদজি ময়লা পরিষ্কার করে মুঠোফোনের গ্যালারিতে যান। আর তা খুলেই যেন চোখ ছানাবড়া। পুরো গ্যালারি ভরে ছিল সেলফি আর ভিডিওতে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, একটি বানর মুঠোফোনটি কামড়ানোর চেষ্টা করছে। মুঠোফোনে রেকর্ডকৃত সময় অনুযায়ী ভিডিওটি শনিবার বেলা ২টা ১ মিনিটে ধারণ করা। রোদজি ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করে লিখেছেন, ‘এমন ঘটনা শতাব্দীতে একবার ঘটে’। তবে বানর কীভাবে ফোনটি হাতিয়ে নিল, তা এখনো পরিষ্কার নয়।

বানরের সেলফি তোলার ঘটনা অবশ্য একেবারে নতুন নয়। ২০১১ সালে ইন্দোনেশিয়ার জঙ্গলে একটি ক্যামেরায় নিজের ছবি তুলেছিল একটি বানর।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন