এর আগে শনিবার গোতাবায়া রাজাপক্ষের বাড়িতে হামলা চালান বিক্ষোভকারীরা। এ সময় সেখানে ভাঙচুর চালানো হয়। এই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায়, প্রেসিডেন্ট বাসভবনের সুইমিং পুলে সাঁতার কাটছেন বিক্ষোভকারীরা। যদিও ওই সময় প্রেসিডেন্ট তাঁর বাসভবনে ছিলেন না। শনিবার বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে—এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে প্রেসিডেন্টকে সেনা সদর দপ্তরে সরিয়ে নেওয়া হয় শুক্রবার রাতেই।

শনিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের বাড়িতেও হামলা চালিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিক্ষোভকারীরা রনিল বিক্রমাসিংহের ব্যক্তিগত বাড়িতে হামলা চালিয়েছেন। এরপর সেখানে আগুন দিয়েছেন। এ ছাড়া ওই বাড়িতে থাকা যানবাহন ভাঙচুর করা হয়েছে। যেসব গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে, সেগুলো রনিল বিক্রমাসিংহের।

যদিও এই হামলার আগেই রনিল বিক্রমাসিংহে ঘোষণা দেন, সব দলকে নিয়ে সরকার গঠনে তিনি পদত্যাগ করবেন।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন