default-image

করোনাভাইরাসের সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে থাকা ৩৫টি দেশের ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে কুয়েত। তবে ওই সব দেশ থেকে আসা যাত্রীদের আবাসিক হোটেলে নিজ খরচে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। স্থানীয় সময় শুক্রবার কুয়েতের বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের মহাপরিচালকের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমন ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতভিত্তিক গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য দেওয়া হয়।

কুয়েতের বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের সহকারী পরিচালক সালেহ আল ফাদাঘি বলেন, ৩৫ দেশ থেকে আসা যাত্রীদের জন্য ৪৫টি হোটেল নির্দিষ্ট করে দেওয়া আছে। তাঁদের এসব হোটেলের মধ্য থেকে যেকোনো একটিতে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এসব হোটেলে থাকার জন্য ১৪ দিনের মূল্য নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পাঁচ তারকা হোটেলে দুজনের থাকার কক্ষের ভাড়া হবে ৭২৫ কুয়েতি দিনার আর ৫৯৫ কুয়েতি দিনার হবে একজনের থাকার কক্ষের ভাড়া। তবে কুয়েতে চিকিৎসা নিতে আসা যাত্রীরা, কুয়েতের শিক্ষার্থীরা, ১৮ বছরের নিচে বয়সীরা ও কূটনৈতিক সফরে আসা ব্যক্তিরা এই নিয়মের বাইরে থাকবেন।

কুয়েতে ভ্রমণে আসা ব্যক্তিদের অবশ্যই হোটেল সংরক্ষণের প্রমাণ দেখাতে হবে। এ ছাড়া তাঁদের ‘কুয়েত মুসাফির আবেদনপত্র’-এ নিবন্ধন করতে হবে।

গত বছরের আগস্টে এই ৩৫ দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল কুয়েত। শুরুতে তালিকায় ৩১ দেশের নাম থাকলেও পর্যায়ক্রমে এ তালিকায় আফগানিস্তান, ফ্রান্স, আর্জেন্টিনাকে যুক্ত করা হয়। সর্বশেষ এই তালিকায় যুক্তরাজ্যের নাম যোগ হয়েছিল।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন