বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্বজুড়ে করোনা ছড়ানোর জন্য চীনকে দায়ী করে পশ্চিমা দেশগুলো। তবে চীন বরাবর এ অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছে। বিষয়টি নিয়ে গত ফেব্রুয়ারিতে উহানে গিয়ে অনুসন্ধান চালিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তদন্তকারীরা। উহানবাসীর রক্তের নমুনা পরীক্ষার মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য করোনার উৎস ও ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে স্বচ্ছতা আনবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

চীনা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সংরক্ষণ করা রক্তের নমুনা দুই বছর কার্যকর থাকবে। এ কারণে যথাযথ তথ্য পেতে আগামী নভেম্বরের মধ্যে রক্ত পরীক্ষার কাজ শেষ করতে হবে। চীনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের একজন কর্মকর্তা সিএনএনকে বলেছেন, রক্তের নমুনা পরীক্ষার প্রস্তুতি প্রক্রিয়াধীন। নমুনার কার্যকারিতা নষ্ট হওয়ার আগেই পরীক্ষা করা হবে।

এ বিষয়ে নিউইয়র্কভিত্তিক কাউন্সিল অন ফরেন রিলেশন্সের বৈশ্বিক স্বাস্থ্যবিষয়ক জ্যেষ্ঠ ফেলো ইয়ানঝং হুয়াং বলেন, ‘এর মধ্য দিয়ে করোনার উৎস ও ছড়িয়ে পড়ার সময় সম্পর্কে জানা যাবে।’

তবে এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে আন্তর্জাতিক পর্যায়ের বিশেষজ্ঞদের সম্পৃক্ত করার দাবি জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটির মহামারিবিদ্যা বিষয়ের সহযোগী অধ্যাপক ম্যুরেন মিলার। তিনি বলেন, চীন সরকারের দেওয়া তথ্য–উপাত্ত আন্তর্জাতিক পর্যায়ে গ্রহণযোগ্য না–ও হতে পারে।

চীন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন