default-image

চীনকে কৌশলগত প্রতিপক্ষ হিসেবে গণ্য না করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত এই আহ্বান জানিয়েছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বুধবার ও চীনের স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার এক অনলাইন ফোরামে দেওয়া বক্তব্যে এই আহ্বান জানান রাষ্ট্রদূত চুই তিয়ানকাই।

২০ জানুয়ারি জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন। যুক্তরাষ্ট্রে নতুন প্রেসিডেন্ট আসার পর এই প্রথম ওয়াশিংটন ও বেইজিংয়ের মধ্যকার সম্পর্ক নিয়ে চীনের কোনো কর্মকর্তা খোলামেলা বক্তব্য দিলেন।

সদ্য বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন ২০১৮ সালে চীনকে কৌশলগত প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আখ্যায়িত করে। ট্রাম্পের আমলে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীনের সম্পর্কের ব্যাপক অবনতি হয়। বাণিজ্য, ভূরাজনীতি, করোনাভাইরাসসহ বিভিন্ন ইস্যুতে দেশ দুটি ব্যাপক বিরোধে জড়ায়। যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রশাসন চীনের ওপর চাপ অব্যাহত রাখবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
default-image

চুই তিয়ানকাই বলেন, চীনকে কৌশলগত প্রতিপক্ষ ও কাল্পনিক শত্রু হিসেবে গণ্য করার বিষয়টি হবে একটি মস্ত বড় কৌশলগত ভুল সিদ্ধান্ত। আর তার ভিত্তিতে যেকোনো নীতি প্রণয়ন করা হলে তা কেবল গুরুতর কৌশলগত ভুলই ডেকে আনবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীন শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান চায় বলে পুনরায় উল্লেখ করেন চীনা রাষ্ট্রদূত। একই সঙ্গে তিনি চীনের সহ্যের শেষ সীমা লঙ্ঘন না করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে দেন।

চুই তিয়ানকাই বলেন, চীন দ্বন্দ্ব নয়, সহযোগিতা চায়। আলোচনার মাধ্যমে বিবদমান বিষয়গুলো সমাধানের পক্ষে মত দেন তিনি।

তবে চুই তিয়ানকাই এ কথাও স্মরণ করিয়ে দেন, চীন তাঁর সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কোনো ছাড় দেবে না।

চীন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন