default-image

জার্মানির ফাইজার–বায়োএনটেকের টিকা নিতে বলায় করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম থেকে বেসরকারি একটি ক্লিনিককে বাদ দিয়েছে হংকংয়ের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। খবর এএফপির।

হংকংয়ের স্বাস্থ্য বিভাগ স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার বলেছে, একজন চিকিৎসক টিকাদান কর্মসূচির চুক্তি ভঙ্গ করায় ওই ক্লিনিক আর টিকাদান কর্মসূচিতে যুক্ত থাকতে পারবে না। কর্তৃপক্ষ বলছে, ওই ক্লিনিক থেকে অব্যবহৃত সিনোভ্যাকের টিকার ডোজ তারা ফেরত নেবে। ওই ক্লিনিকের একটি নোটিশে বলা হয়, ‘সিনোভ্যাকের টিকা নয়, বায়োএনটেকের টিকা নিন।’

হংকংয়ের চার লাখ তিন হাজার বাসিন্দা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন। এর মধ্যে আড়াই লাখ মানুষ সিনোভ্যাকের টিকা নিয়েছেন। বাকিরা নিয়েছেন ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা।

বিজ্ঞাপন

অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের তুলনায় চীনের সিনোভ্যাক টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের বিষয়ে খুব বেশি তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। সিনোভ্যাকের টিকার অনুমোদন দিয়েছে হংকং।
চীন ছাড়া অন্য দেশে পরিচালিত গবেষণা বলছে, সিনোভ্যাকের টিকার কার্যকারিতা ৫০ থেকে ৮০ শতাংশ। আর ফাইজার–বায়োএনটেকের টিকার কার্যকারিতা ৯৪ থেকে ৯৫ শতাংশ।

হংকংয়ে গত মাসে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। সাম্প্রতিক জরিপ বলছে, প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিদের মাত্র ৩৭ শতাংশ টিকা নেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন। যদিও হংকংয়ের কয়েকজন মহামারি বিশেষজ্ঞ বলছেন, ফাইজার–বায়োএনটেকের টিকা বেশি কার্যকর।

চীন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন