default-image

চীনের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা করেছে চীন। চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এসব অকারণ দমন-পীড়ন বন্ধে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। তারা বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের উচিত চীনা প্রতিষ্ঠানের ওপর এসব অযৌক্তিক নিষেধাজ্ঞা দেওয়া বন্ধ করা।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, সম্প্রতি যেসব ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের চীনের সেনাবাহিনীর সঙ্গে সম্পৃক্ততা রয়েছে, সেগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগে নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত দেয় ওয়াশিংটন। যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের জবাবে চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এমন কথা বলেছে।

চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় মার্কিন সরকারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করেছে। বিশ্বের অন্যতম ক্ষমতাধর দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও একই প্রতিক্রিয়া দেখানো হয়।

বিজ্ঞাপন

গত এক বছরে বিশ্বের দুটি বৃহত্তম অর্থনীতির মধ্যে উত্তেজনা তীব্র হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্ক ও প্রযুক্তিগত সাপ্লাই চেইন বড় ধাক্কা খেয়েছে। দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক যুদ্ধ শুরুর আশঙ্কা ঘনীভূত হচ্ছিল।

বৈশ্বিক মহামারির পাশাপাশি মার্কিন চাপের কারণে চীন নতুন লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে।

এই নীতিতে বিদেশি বাজার ও প্রযুক্তির ওপর নির্ভরতা কমাবে দেশটি এবং নিজস্ব অর্থনৈতিক উন্নয়নে আরও গুরুত্ব দেবে। চীনের অর্থনীতি উন্নয়নে এ নীতিকে ডুয়েল সার্কুলেশন নীতি বলা হচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0