ফ্রান্সের আল্পস পার্বত্য এলাকায় প্রচণ্ড তুষারপাতের কারণে গত শনিবার রাত থেকে প্রায় ১৫ হাজার যানবাহন আটকা পড়েছে। অনেকে নিজেদের গাড়িতেই রাত কাটাতে বাধ্য হয়েছেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে জরুরি আশ্রয়কেন্দ্র চালু করা হয়েছে। খবর এএফপি ও বিবিসির।
ইজের অঞ্চলে একটি গাড়ি পিছলে গিরিখাতে পড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শীতকালীন অবকাশ যাপন এবং স্কিয়িংয়ের জন্য বিপুলসংখ্যক মানুষ আল্পস এলাকায় যান। চলমান তুষারপাতের কারণে ফ্রান্সের সরকার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আবহাওয়া সতর্কতা জারি করেছে। গাড়িচালকদের সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে এবং যাতায়াত যথাসম্ভব এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে। ফরাসি দৈনিক লো মঁদ জানায়, তুষারপাতের কারণে পৃথক দুর্ঘটনায় গত সপ্তাহে তিনজনের মৃত্যু হয়।
তুষারপাতে আটকে পড়া লোকজনের জন্য দক্ষিণ-পূর্ব ফ্রান্সের সাভয়া এলাকার অন্তত ১২টি শহরের ব্যায়ামাগার ও মিলনায়তনগুলোকে আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। আবহাওয়া বিভাগ বলছে, আগামী সপ্তাহ পর্যন্ত প্রচণ্ড ঠান্ডা চলতে থাকবে। প্যারিস শহরে এক বছরের বেশি সময় পর তুষারপাতের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।
তুষারপাতের কারণে যুক্তরাজ্যেও দুর্যোগ দেখা দিয়েছে। সেখানে আগামী সপ্তাহে তাপমাত্রা মাইনাস ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত নেমে যেতে পারে।

বিজ্ঞাপন
ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন