ইউক্রেনের স্বাধীনতাকে অবমাননা করার অভিযোগে রাশিয়া ও ইউক্রেনের আরও ১৯ ব্যক্তি ও নয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। গতকাল সোমবার প্রকাশিত এই তালিকায় রাশিয়ার দুজন উপপ্রতিরক্ষামন্ত্রীর পাশাপাশি নামকরা একজন রুশ গায়কের নামও রয়েছে। খবর এএফপি ও রয়টার্সের।
সংঘাতপূর্ণ পূর্ব ইউক্রেনে রুশপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদী ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে একটি অস্ত্রবিরতি কার্যকরের মধ্যেই ইইউর এই নতুন নিষেধাজ্ঞা এল। তালিকায় নাম থাকা ব্যক্তি ও সংগঠনগুলোর বেশির ভাগই ইউক্রেনের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হলেও কয়েকজন রুশও রয়েছেন। তাঁদের সম্পদ জব্দের পাশাপাশি ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।
তালিকায় মোট পাঁচজন রুশ নাগরিকের নাম রয়েছে। এঁদের মধ্যে সুপরিচিত ইয়োসিফ কোবজোন। তাঁকে বিখ্যাত মার্কিন গায়ক, অভিনেতা ও পরিচালক ফ্রাঙ্ক সিনাত্রার সমকক্ষ রুশ গায়ক মনে করা হয়ে থাকে। ৭৭ বছর বয়সী কোবজোন রুশ পার্লামেন্ট দুমার একজন সদস্যও। ইইউর দাপ্তরিক জার্নালের ভাষ্যমতে, কোবজোন ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের ‘তথাকথিত দোনেৎস্ক প্রজাতন্ত্রে সফরে গিয়েছিলেন এবং সফরকালে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের পক্ষে বিবৃতি দিয়েছিলেন’ বলেই তাঁর নাম তালিকায় রাখা হয়েছে।
তালিকায় নাম থাকা অন্য রুশদের মধ্যে রয়েছেন রাশিয়ার প্রথম উপপ্রতিরক্ষামন্ত্রী আরকাদি বাখিন, উপপ্রতিরক্ষামন্ত্রী আনাতোলি আনতোনভ এবং রুশ সশস্ত্র বাহিনীর উপপ্রধান আন্দ্রেই কারাতাপোভ। পাশাপাশি ইউক্রেনের বিচ্ছিন্নতাবাদী গ্রুপ কোসাক ন্যাশনাল গার্ড, দ্য স্পার্টা ব্যাটালিয়ন এবং ডেথ ব্যাটালিয়নসহ নয়টি সশস্ত্র গ্রুপ এবং ১৪ জন সামরিক ও রাজনৈতিক নেতার নামও রয়েছে এই তালিকায়। তাঁদের সবাই স্বঘোষিত দোনেতস্ক ও লুগানস্ক এলাকার নেতা।
ইইউর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা গত মাসের শেষের দিকে এই নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে একমত হয়েছিলেন। পূর্ব ইউক্রেনের বন্দর নগর মারিপুলে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ভয়াবহ অভিযানে ৩০ জনের বেশি বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার জের ধরে ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
নিরাপত্তা পরিষদের উদ্যোগ: পূর্ব ইউক্রেনে অস্ত্রবিরতির ব্যাপারে আরও আলোচনা চালাবে জাতিসংঘের ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদ। তবে তারা একটি প্রস্তাব গ্রহণ করার জন্য এখনো প্রস্তুত নয়। কূটনীতিকেরা গত রোববার এ কথা বলেছেন।
পূর্ব ইউক্রেনে রোববার থেকে শুরু হওয়া অস্ত্রবিরতিসংক্রান্ত একটি চুক্তি বাস্তবায়নে সব পক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়ে রাশিয়ার তোলা একটি প্রস্তাবের ওপর নিরাপত্তা পরিষদে ভোটাভুটি হওয়ার কথা ছিল। তবে মালয়েশিয়াসহ কিছু দেশ প্রস্তাবটিতে সংশোধন আনার পক্ষে। মালয়েশিয়া প্রস্তাবটিতে গত জুলাই মাসে ইউক্রেনে বিধস্ত মালয়েশীয় যাত্রীবাহী উড়োজাহাজের বিষয়টি যোগ করতে চায়।

বিজ্ঞাপন
ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন