ইউক্রেনকে পরামর্শে যুদ্ধাপরাধ আইনজীবী নিয়োগ যুক্তরাজ্যের

স্যার হাওয়ার্ড মরিসন কিউসি
ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া

ইউক্রেনকে পরামর্শ দিতে যুদ্ধাপরাধ-সংক্রান্ত একজন আইনজীবী নিয়োগ করেছে যুক্তরাজ্য। আজ সোমবার বিবিসি অনলাইনের লাইভে এই তথ্য জানানো হয়।

রাশিয়ার আগ্রাসন নিয়ে ইউক্রেনকে পরামর্শ দেওয়ার জন্য যুদ্ধাপরাধ-সংক্রান্ত এই আইনজীবীকে নিয়োগ দিয়েছেন যুক্তরাজ্য সরকারের শীর্ষ আইন উপদেষ্টা।

যুদ্ধাপরাধ-সংক্রান্ত এই আইনজীবীর নাম স্যার হাওয়ার্ড মরিসন কিউসি।

যুক্তরাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল সুয়েলা ব্রেভম্যান বলেন, স্যার হাওয়ার্ড মরিসন কিউসি ইউক্রেনের প্রসিকিউটর জেনারেল ইরিনা ভেনেডিক্টোভার স্বাধীন উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করবেন।

যুদ্ধাপরাধ-সংক্রান্ত আইন, বিচার, মামলার বিষয়ে স্যার হাওয়ার্ড মরিসন কিউসির দীর্ঘ অভিজ্ঞতা রয়েছে।

স্যার হাওয়ার্ড ১২ বছরের বেশি সময় ধরে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে বিচারক হিসেবে কাজ করেছেন।

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতেও (আইসিসি) বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন স্যার হাওয়ার্ড।

স্যার হাওয়ার্ড সার্বিয়ান যুদ্ধাপরাধী রাদোভান কারাদজিচের মতো ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলার তত্ত্বাবধান করেছেন।

ইউক্রেনের প্রসিকিউটর জেনারেল ভেনেডিক্টোভারকে সহযোগিতার বিষয়ে চলতি মাসের শুরুর দিকে একটি যৌথ বিবৃতি সই করেন যুক্তরাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল ব্রেভম্যান। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সরকার কর্তৃক ইউক্রেনে সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধ ও যুদ্ধাপরাধের প্রমাণ সংগ্রহে সাহায্য-সহযোগিতা-সমর্থনের প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

ব্রেভম্যান গত বৃহস্পতিবার হাউস অব কমন্সে বলেন, যুদ্ধাপরাধের জন্য পুতিন সরকারের বিচারের প্রসঙ্গ এলে করণীয় সব বিকল্পই উন্মুক্ত রয়েছে। তবে আইসিসির মাধ্যমে দায়ী ব্যক্তিদের জবাবদিহির আওতায় আনার বিষয়টি যুক্তরাজ্য সরকারের পছন্দের তালিকায় রয়েছে।

ইউক্রেনে রাশিয়া যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত করে চলছে বলে অভিযোগ কিয়েভের। কিয়েভের মিত্ররাও একই অভিযোগ করছে।

প্রেসিডেন্ট পুতিনের নির্দেশে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া।