বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দুই সপ্তাহের এই সম্মেলন থেকে নতুন অনেক ঘোষণা আসতে পারে। এসব ঘোষণার মধ্যে বেশ কিছু খুবই কারিগরিকেন্দ্রিক হতে পারে। যেমন প্যারিস জলবায়ু চুক্তি বাস্তবায়নে আরও যেসব নিয়ম থাকা দরকার, তা যুক্তকরণ।

আরও যেসব ঘোষণা আসতে পারে

*দ্রুত বৈদ্যুতিক গাড়িতে চলে যাওয়া

*কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ থেকে দ্রুত সরে আসা

*বৃক্ষনিধন কমানো

*জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব থেকে বেশিসংখ্যক মানুষকে রক্ষা। যেমন উপকূলীয় প্রতিরক্ষাব্যবস্থায় অর্থায়ন।

গ্লাসগো সম্মেলনে প্রায় ২৫ হাজার মানুষ অংশ নেবেন। তাঁদের মধ্যে বিশ্বনেতা, সমঝোতাকারী ও সাংবাদিকেরা থাকবেন।

গ্লাসগোতে হাজারো পরিবেশকর্মী ও ব্যবসায়ী জড়ো হবেন। তাঁরা নানা অনুষ্ঠান, আয়োজন, নেটওয়ার্কিং ও বিক্ষোভের মতো কর্মসূচিতে অংশ নেবেন। তাঁরা জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার অবিলম্বে বন্ধের আহ্বান জানাবেন।

সম্মেলন শেষে কিছু ঘোষণা আসতে পারে। এসব ঘোষণায় সব কটি দেশের সই থাকবে। ঘোষণায় সুনির্দিষ্ট অঙ্গীকার থাকবে।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন