বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বলা হয়েছে, জার্মানি ও ডেনমার্কে ভ্রমণের ব্যাপারে উচ্চপর্যায়ের সতর্কবার্তা দিয়েছে সিডিসি। সংস্থাটি বলেছে, এই দুই দেশে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ভ্রমণ করা উচিত হবে না। সিডিসি ছাড়াও সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর। নাগরিকদের উদ্দেশে পররাষ্ট্র দপ্তর বলেছে, এই দুই দেশে ভ্রমণ করবেন না।
এই দুটি দেশ ছাড়াও আরও ৭৫টি স্থানের ব্যাপারে চতুর্থ মাত্রার সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছে সিডিসি। ইউরোপের আরও কয়েকটি দেশ রয়েছে এ তালিকায়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে অস্ট্রিয়া, যুক্তরাজ্য, বেলজিয়াম, গ্রিস, নরওয়ে, সুইজারল্যান্ড, রোমানিয়া, আয়ারল্যান্ড ও চেক প্রজাতন্ত্র।

দেশের পরিস্থিতি তুলে ধরে জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল তাঁর দলের নেতাদের উদ্দেশে বলেছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তা যথেষ্ট নয়। এ সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য শক্তিশালী পদক্ষেপ নিতে হবে।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, জার্মানির প্রবীণ নাগরিকদের মধ্যে যাঁরা করোনার টিকার দুই ডোজ নিয়েছেন, চলতি বছরের শুরুতে তাঁরাও আক্রান্ত হচ্ছেন এবং যেসব শিশুরা টিকা নিতে পারেনি, তাদের মধ্যেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে।

ইউরোপের পরিস্থিতি নিয়ে চলতি মাসের শুরুর দিকে সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংস্থাটি বলেছিল, করোনার সংক্রমণ এবং এর সংক্রমণে মৃত্যু ঠেকাতে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। এ ছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোর করোনা পরিস্থিতিকে উদ্বেগজনক বলে উল্লেখ করেছে সংস্থাটি।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন