বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইতালির ভিলা অব সিভিটা জিউলিয়ানায় খননের সময় ওই ঘরের সন্ধান পাওয়া যায়। প্রায় দুই হাজার বছর আগে মাউন্ট ভিসুভিয়াসের অগ্ন্যুৎপাতের ফলে রোমান ভিলাটি ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। প্রত্নতাত্ত্বিকেরা এ ধরনের আবিষ্কার বিরল বলে মন্তব্য করেছেন।

এ বছরের শুরুতে এখানে খননের সময় একটি প্রায় অক্ষত অলংকৃত রোমান রথ আবিষ্কৃত হয়েছিল। গত শনিবার প্রত্নতাত্ত্বিকেরা বলেন, কক্ষটিতে সম্ভবত রথের রক্ষণাবেক্ষণ ও প্রস্তুতির জন্য ক্রীতদাসদের রাখা হতো।

পম্পেইয়ের মহাপরিচালক গ্যাব্রিয়েল জুকট্রিগেল বলেছেন, ঐতিহাসিক উৎসগুলোতে সন্ধান মেলে না, এমন ব্যক্তিদের সম্পর্কে জানার একটি সুযোগ সৃষ্টি করবে এ আবিষ্কার। প্রাচীন সমাজে সবচেয়ে দুর্বল মানুষেরা কীভাবে বাস করত, তার অনন্য সাক্ষ্য এটি।

৭৯ খ্রিষ্টাব্দে মাউন্ট ভিসুভিয়াস অগ্ন্যুৎপাতের সময় ইতালির পম্পেই নগরী ধ্বংস হয়ে যায়। যারা সময়মতো শহর ত্যাগ করতে পারেনি, তারা নিহত হয়।

মাত্র ১৬ বর্গফুটের ওই ঘর মূলত শোবার ঘর ও মালপত্র রাখার ঘরের মিশেল বলে মনে হয়। সেখানে তিনটি বিছানা ছিল। এর মধ্যে একটি বিছানা শিশুদের উপযোগী। এর মধ্যে কাঠের বড় বাক্সে ধাতব বস্তু ও কাপড়ের জিনিস রাখা হতো, যা রথের ঘোড়ার বলে মনে হয়। একটি বিছানার ওপর রথে ব্যবহৃত বিশেষ বাণ রয়েছে। এ বছরের শুরুর দিকে খননের সময় আস্তাবলে তিনটি ঘোড়ার দেহাবশেষ পাওয়া গিয়েছিল। পম্পেই প্রত্নতাত্ত্বিক উদ্যান কর্তৃপক্ষ বলছে, ক্রীতদাসদের দৈনন্দিন বাস্তবতা সম্পর্কে বিরল তথ্য দেয় ঘরটি।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন