default-image

রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনি রাশিয়ায় ফেরার পরিকল্পনা করছেন। আজ বুধবার তিনি এ ঘোষণা দিয়েছেন। বর্তমানে তিনি জার্মানিতে অবস্থান করছেন। সিএনএনের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কঠোর সমালোচক নাভালনির ওপর বিষ প্রয়োগ করা হয়েছিল গত বছরের ২০ আগস্ট। এর ফলে সাইবেরিয়া থেকে আকাশপথে মস্কো যাওয়ার সময় অসুস্থ হয়ে পড়েন নাভালনি। তাঁকে মস্কো শহরের একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাঁকে জার্মানিতে নেওয়া হয় চিকিৎসার জন্য। পরে জার্মান সরকার জানায়, নোভিচক গ্রুপের নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগ করা হয়েছিল নাভালনির ওপর। যদিও রাশিয়া এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

বিজ্ঞাপন

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, জার্মানিতে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠছেন নাভালনি। আজ সকালে ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন তিনি। এতে নাভালনি বলেন, রাশিয়ায় ফিরতে তিনি উড়োজাহাজের টিকিট কিনেছেন। ‘এখন মোটামুটি সুস্থ এবং শেষমেশ দেশে ফেরার জন্য প্রস্তুত’, এমনটা অনুভব করার পর তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আজ এ নিয়ে একটি টুইট বার্তাও দিয়েছেন নাভালনি। এতে তিনি উল্লেখ করেছেন, ‘দেশে ফিরব কি না, এটা আমার জন্য কোনো প্রশ্ন হতে পারে না। কারণ, আমি দেশ ছাড়িনি। একটি “ইনটেনসিভ কেয়ার বক্সে” করে আমাকে জার্মানিতে আনা হয়েছিল। ১৭ জানুয়ারি রোববার পোবেদা এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে আমি বাড়ি ফিরব।’ দেশে ফেরার পর সমর্থকদের দেখা করার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে নাভালনি যখন দেশে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছেন, তখনই নড়েচড়ে উঠেছে রাশিয়ার কারা কর্তৃপক্ষ। গত সোমবার রুশ কারা কর্তৃপক্ষ আদালতের কাছে নাভালনির স্থগিত কারাদণ্ড পুনর্বহাল করার আহ্বান জানায়। এর কারণ হিসেবে তারা বলেছে, নাভালনি জার্মানিতে থাকা অবস্থায় ওই দণ্ডাদেশ স্থগিতের শর্ত লঙ্ঘন করেছেন। এ প্রসঙ্গে নাভালনি বলেন, তাঁর দেশে ফেরা ঠেকাতে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। পুতিনের নির্দেশে এমনটা করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মন্তব্য করুন