default-image

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে সম্প্রতি পার্লামেন্টে পাস হওয়া সংবিধান সংশোধনের ওপর সাত দিনব্যাপী ভোট গ্রহণ গতকাল বুধবার শেষ হয়েছে। সর্বশেষ খবরে গণভোটের ঘোষিত আংশিক ফলাফলে দেখা যায়, বিপুল ভোটে অনুমোদন পেতে যাচ্ছেন পুতিন। ৭০ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছে সংবিধান সংশোধনের পক্ষে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও এএফপির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

এ ভোটে ভোটাররা যাতে ভোটদানে উৎসাহী হন, সে লক্ষ্যে নেওয়া হয় ব্যতিক্রমী কিছু পদক্ষেপ। যেমন: র‍্যাফল ড্র। পুরস্কার হিসেবে ছিল নগদ অর্থ, ফ্ল্যাট ইত্যাদি। ভোটে সংবিধান সংশোধনের পক্ষে রায় এলে অনায়াসে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত, অর্থাৎ পুতিন তাঁর বর্তমান মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আরও দুই মেয়াদে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকতে পারবেন।

রাষ্ট্রীয়ভাবে পরিচালিত বুথফেরত জরিপের ফলাফলে আভাস পাওয়া গেছে, ভোটারদের দুই-তৃতীয়াংশের বেশি পুতিনের নেওয়া ওই পদক্ষেপের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

রাশিয়ায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে ভোটারদের ভিড় কমাতে ভোট গ্রহণের সময় সাত দিন করা হয়।

এর আগে মতামত জরিপে দেখা গেছে, পুতিনের পক্ষে ৭৬ শতাংশ ভোটারের সমর্থন রয়েছে। ভোট প্রদান শেষে মস্কোর বাসিন্দা মিখাইল ভলকভ বলেন, 'সংবিধান সংশোধনের পক্ষে ভোট দিয়েছি।'

বিজ্ঞাপন
ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন