পুতিনের সমালোচক নাভালনি দেশে ফিরবেন

বিজ্ঞাপন
default-image

রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনি দেশে ফিরবেন। তাঁর মুখপাত্র এ কথা জানিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

৪৪ বছর বয়সী নাভালনি বর্তমানে জার্মানিতে চিকিৎসাধীন। তাঁর ওপর নার্ভ এজেন্ট নোভিচক প্রয়োগ করা হয়েছিল বলে জার্মানি, ফ্রান্স ও সুইডেন জানিয়েছে।

নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগের চার সপ্তাহ পর কোমা থেকে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন নাভালনি। গতকাল জার্মানির হাসপাতালের বিছানায় বসে ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেছেন। বিষ প্রয়োগের শিকার হওয়ার পর ইনস্টাগ্রামে এটাই তাঁর প্রথম ছবি। নাভালনি বলেছেন, তিনি ভেন্টিলেশন ছাড়াই শ্বাস নিতে পারছেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নাভালনির রাশিয়ায় ফেরার প্রসঙ্গে তাঁর মুখপাত্র কিরা ইয়ারমিশ এক টুইটার পোস্টে লেখেন, অন্য চিন্তা কেন আসছে, সেটাই তাঁর কাছে বিস্ময়কর। তিনি ফের সবাইকে নিশ্চিত করছেন যে অন্য কোনো কিছু কখনো বিবেচনা করা হয়নি।

নাভালনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচক হিসেবে পরিচিত।

গত ২০ আগস্ট সাইবেরিয়ার টমসক শহর থেকে মস্কোয় যাওয়ার পথে উড়োজাহাজে অসুস্থ হয়ে পড়েন নাভালনি। প্রথমে তাঁকে সাইবেরিয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তিনি জার্মানি যান।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জার্মানির চিকিৎসকেরা জানান, নাভালনিকে নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগ করা হয়েছে বলে স্পষ্ট প্রমাণ রয়েছে। ফ্রান্স ও সুইডেনের পরীক্ষাগারে পরীক্ষা করেও নাভালনিকে বিষ প্রয়োগের প্রমাণ মিলেছে।

নাভালনির দলের অভিযোগ, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে।

তবে নাভালনিকে বিষ প্রয়োগের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে ক্রেমলিন। একই সঙ্গে রাশিয়ার দাবি, তাদের চিকিৎসকেরা বিষের উপস্থিতি পাননি।

নাভালনির ওপর রাসায়নিক প্রয়োগের ব্যাপারে নিরপেক্ষ ও স্বাধীন তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন