default-image

প্যারিসে কৃষ্ণাঙ্গ এক সংগীত প্রযোজককে মারধর করার ভিডিও প্রচার হওয়ার পর তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে ফরাসি কর্তৃপক্ষ। শনিবারের ওই ঘটনায় ফরাসি নিরাপত্তা বাহিনী পরিচালনা নিয়ে নতুন করে হইচই শুরু হয়েছে। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সোমবার প্যারিসে অস্থায়ী অভিবাসী শিবির ভেঙে ফেলতে পুলিশের বিরুদ্ধে অপ্রয়োজনীয় শক্তিপ্রয়োগ করার অভিযোগ আনা হয়েছে। এ ঘটনাটি এমন একসময় ঘটেছে, যখন ফরাসি কর্তৃপক্ষ পুলিশের মুখের ছবি সম্প্রচার বন্ধের আইন নিয়ে কাজ করছে।

বিজ্ঞাপন

সমালোচকেরা বলছেন, পুলিশের ছবি ব্যবহার না করার এমন আইন করা হলে গত সপ্তাহে তাদের ঘটানো কার্যক্রমগুলো সামনে আসত না।

গতকাল বৃহস্পতিবার ফরাসি ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপ্পেসহ অন্য ক্রীড়াবিদেরা গত সপ্তাহের কৃষ্ণাঙ্গ নির্যাতনের ঘটনার নিন্দা প্রকাশ করেন।

মাইকেল নামের ওই প্রযোজকের রক্তাক্ত মুখের ছবি টুইটারে প্রকাশ করে এমবাপ্পে লিখেছেন, ‘অসহনীয় ভিডিও, অগ্রহণযোগ্য সহিংসতা। বর্ণবাদকে না বলুন।’

অনলাইন নিউজসাইট লুপসাইডার বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা ক্যামেরার ভিডিও প্রকাশ করে। তাতে দেখা যায়, তিন পুলিশ কর্মকর্তা কৃষ্ণাঙ্গ প্রযোজককে লাথি, ঘুষি মারছেন। প্রথমে তাঁকে মাস্ক না পরার জন্য আটক করেছিল পুলিশ। এরপর মারধর করা হয়।

মাইকেল অভিযোগ করেন, মারধরের পাশাপাশি তিনি বর্ণবৈষম্যের শিকার হন। তাঁকে আটক করে সহিংসতার অভিযোগ আনা হয়।

মন্তব্য করুন