default-image

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ও ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বাকিংহাম প্যালেসের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়েছে, ‘সতর্কতাস্বরূপ’ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, প্রিন্স ফিলিপের বয়স ৯৯ বছর। বাকিংহাম প্যালেসের পাঠানো বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তাঁকে যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের সপ্তম কিং এডওয়ার্ড হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

সূত্র বলেছে, প্রিন্স ফিলিপকে একটি গাড়িতে করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

চিকিৎসকের পরামর্শে তাঁকে ভর্তি করা হয়। কয়েক দিন ধরে তিনি অসুস্থ বোধ করছিলেন। তবে এ অসুস্থতার সঙ্গে করোনাভাইরাস সম্পর্কিত নয়। তিনি হাসপাতালে ভালো বোধ করছেন। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আরও কয়েক দিন হাসপাতালে থাকবেন।
রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ সুস্থ আছেন। তাঁর বয়স ৯৪ বছর। প্রিন্স ফিলিপকে হাসপাতালে নেওয়া হলেও রানি উইন্ডসর ক্যাসলে আছেন।

গত মাসে প্যালেসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, প্রিন্স ফিলিপ ও রানি এলিজাবেথ টিকা নিয়েছেন। তাঁদের সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসকই টিকা দিয়েছেন। এ ছাড়া করোনার শুরু থেকেই তাঁরা উইন্ডসরে রয়েছেন। খুব অল্পসংখ্যক কর্মকর্তা কর্মচারী তাঁদের সঙ্গে রয়েছেন। এ ব্যবস্থাকে এইচএমএস বাবল বলা হচ্ছে।

এদিকে প্রিন্স ফিলিপের অসুস্থতার খবর পাওয়ার পর এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কার্যালয়। এ প্রসঙ্গে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটের এক মুখপাত্র বলেন, প্রধানমন্ত্রী বরিস শুভকামনা জানিয়েছেন।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন