বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফ্রান্সে ফল ও সবজির এক–তৃতীয়াংশ প্লাস্টিকে মুড়িয়ে বিক্রি করা হয়। সরকারি কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, এর মধ্য দিয়ে প্রতিবছর একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিকের ১০০ কোটি পণ্য ব্যবহার কমবে।

নতুন আইন ঘোষণা করে পরিবেশ মন্ত্রণালয় এক বিবৃতি দিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ফ্রান্স ‘ব্যাপক পরিমাণ’ একক ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক ব্যবহার করে। নতুন নিষেধাজ্ঞার লক্ষ্য এই ধরনের প্লাস্টিকের পণ্য ব্যবহার কমানো এবং এর বিকল্প হিসেবে অন্যান্য উপকরণ বা পুনর্ব্যবহারযোগ্য মোড়কের পরিমাণ বাড়ানো।

এই নিষেধাজ্ঞা মাখোঁর কয়েক বছরব্যাপী প্রকল্পের অংশ। ২০২১ সালে দেশটি প্লাস্টিকের পাইপ, কাপ ও চামচ, ছুরি ও একবার ব্যবহারযোগ্য খাবারের বক্স নিষিদ্ধ ছিল।

২০২২ সালের পরে জনসমাগম হয় এমন স্থানে প্লাস্টিকের বোতলের ব্যবহার কমাতে সুপেয় পানির কল স্থাপন বাধ্যতামূলক করা হবে। সব ধরনের প্রকাশনা প্লাস্টিকের মোড়ক ছাড়াই চালান পাঠানো হবে। আর ফাস্ট ফুডের রেস্তোরাঁগুলো বিনা মূল্যে প্লাস্টিকের খেলনা দেওয়ার অফার করতে পারবে না।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, দেশটিতে ২০২৩ সালের জুনের পর চেরি, টমেটো, সবুজ শিম ও পিচ প্লাস্টিকের মোড়কে বিক্রি করা যাবে না। আর ২০২৪ সালের শেষ নাগাদ ইনডিভ, এসপারাগাস, মাসরুম ও কিছু সালাদ ও হার্ব প্লাস্টিকের মোড়কে বিক্রি করা যাবে না। আর ২০২৬ সালের পর রাসবেরি, স্ট্রবেরিসহ নানা ধরনের সুস্বাদু বেরি প্লাস্টিকের মোড়কে বিক্রি করা যাবে না।

ইউরোপের আরও বেশ কয়েকটি দেশ সাম্প্রতিক সময়ে একই ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। গত মাসের শুরুর দিকে স্পেন ২০২৩ সাল থেকে প্লাস্টিকের মোড়কে ফল ও সবজি বিক্রি নিষিদ্ধ করে।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন