দলীয় প্রধানের পদ ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে বরিস বলেন, কনজারভেটিভ পার্টির নতুন নেতা নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত তিনি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব চালিয়ে যাবেন।

বরিসের এ ঘোষণার পর যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য কনজারভেটিভ পার্টির নেতাদের মধ্যে তৎপরতা শুরু হয়।

এই লড়াইয়ে সর্বশেষ যোগ দিয়েছেন দেশটির বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস। এ ছাড়া আছেন ঋষি সুনাক, সাজিদ জাভেদ, জেরেমি হান্ট, প্রীতি প্যাটেল, টম টুগেন্ডহাট, নাদিম জাহাবি, কেমি বেডেনচ, সুয়েলা ব্রেভারম্যান, রেহমান চিশতি, পেনি মরডেন্ট ও গ্রান্ট শ্যাপস।

দলীয় নেতা নির্বাচনের সময়সূচির রূপরেখা গতকাল ঘোষণা করে কনজারভেটিভ পার্টি।

ঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ী, আনুষ্ঠানিকভাবে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া যাবে আজ মঙ্গলবার।

গ্রীষ্মকালীন বিরতি শেষে পার্লামেন্ট বসলে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর নতুন প্রধানমন্ত্রী বহাল করা হবে।

একাধিক দফা ভোটের মাধ্যমে প্রার্থীর সংখ্যা দুইয়ে নামিয়ে আনবে কনজারভেটিভ পার্টি। সর্বশেষে এই দুজনের মধ্য থেকে বিজয়ী বেছে নেবেন দলটির সদস্যরা।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন