বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জইর বলসোনারো বলেন, ইংল্যান্ডে যেসব খাবারের ঘাটতি রয়েছে, সেসব খাবার জরুরি ভিত্তিতে আমদানি করতে চান বরিস জনসন।

তবে বলসোনারোর বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছে ব্রাজিলে ব্রিটিশ দূতাবাস। এই দূতাবাসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বলসোনারো যা বলেছেন, তা সঠিক নয়। এ ছাড়া বলসোনারোর কার্যালয়ের পক্ষ থেকে এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

যুক্তরাজ্যে সম্প্রতি প্রাকৃতিক গ্যাসের সংকট দেখা দিয়েছে। এর ফলে বেশ কিছু সার কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। খাদ্য উৎপাদনেও এর প্রভাব পড়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে পোলট্রি ও অন্যান্য মাংসের উৎস খুঁজছে যুক্তরাজ্য সরকার।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন