মাছি মারতে বিস্ফোরণ

বিজ্ঞাপন

বাংলায় একটা কথা আছে—‘মাছিমারা কেরানি’। যেন মাছি মারা কত সহজ। কিন্তু যে মাছি মারতে গেছে, সেই জানে কত কঠিন এটা। এই ফ্রান্সেই যেমন মাছি মারতে গিয়ে ৮০ বছরের এক বৃদ্ধের নিজের ঘরের একাংশই বিস্ফোরণে উড়ে গেল।

খেতে বসেছিলেন ভদ্রলোক। ঠিক এ সময়ই এল মাছি। যেমনটা আসে। নিশ্চিতভাবে হাত-টাত নেড়ে বেশ কয়েকবার তাড়ানোর চেষ্টাও করেছেন। কিন্তু নচ্ছার মাছি কি আর সরে? সরল না। ক্ষেপে উঠলেন ভদ্রলোক। মশা-মাছি মারার এক ধরনের ইলেকট্রিক ব্যাট বেরিয়েছে। তাঁর ঘরেও ছিল এমন এক ব্যাট। সে অস্ত্র সম্বল করেই নামলেন মাছি নিধন অভিযানে। কিন্তু কে জানত সে অভিযানের সমাপ্তি লেখা আছে বিস্ফোরণে!

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গতকাল রোববার বিবিসি অনলাইনে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, ফ্রান্সের দোদোঁয়ে ঘটেছে এ ঘটনা। ৮০ বছরের বেশি বয়স হবে ভদ্রলোকের। রাতের খাবার খেতে বসেছিলেন। ঠিক সে সময় মাছি ভনভন। ভালো লাগল না তাঁর। হাতে তুলে নিলেন গরে থাকা ইলেকট্রিক ব্যাট। জানতেন না যে, তাঁর ঘরে থাকা গ্যাসের সিলিন্ডারে ছিদ্র ছিল। ওই ছিদ্র দিয়ে আগে থেকেই গ্যাস বের হচ্ছিল।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাছি মারার এই চেষ্টার মধ্যেই ভদ্রলোকের হাতে থাকা ইলেকট্রিক ব্যাট থেকে বের হওয়া স্ফুলিঙ্গ বাকি কাজটা করেছে। বিরাট বিস্ফোরণ। ভদ্রলোকের রান্নাঘরটি এখন কেবলই স্মৃতি। ছাদের কিছু অংশও উড়ে গেছে। তবে মাছিটির ভাগ্যে কী ঘটেছে, তা কেউ জানে না।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভয়াবহ এ ঘটনার মধ্য দিয়ে যাওয়া ওই ভদ্রলোকের নামের উল্লেখ না থাকলেও বিবিসি অনলাইন জানিয়েছে, তিনি সহি সালামতে আছেন। হাত একটু পুড়ে যাওয়া ছাড়া বড় কোনো আঘাত পাননি। শুধু তাঁর ঘরের ওপর দিয়েই যা যাওয়ার গেছে। এখন সে ঘর মেরামতের কাজ হচ্ছে।

এ ঘটনার পর আর কেউ নিশ্চয় মাছি মারার বিষয়টি নিয়ে মশকরা করবে না।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন