বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত সপ্তাহে যুক্তরাজ্যে সর্বোচ্চ ২ লাখের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয়। এর পর থেকে দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কমে এসেছে। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ১ লাখ ৪৬ হাজার ৩৯০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এদিকে যুক্তরাজ্যে করোনার চলমান প্রকোপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। বিশাল সংখ্যক মানুষ প্রতিনিয়ত করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় স্বাস্থ্যকর্মীর সংকট দেখা দিয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে গত শুক্রবার দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষণা দিয়েছে, হাসপাতালে কর্মীদের সহায়তা করতে সেনাসদস্যদের পাঠানো হবে।

যুক্তরাজ্যের সরকারি হিসাব বলছে, করোনার এবারের ধাক্কায় হাসপাতালে ভর্তি কিংবা মৃত্যুর হার বেশ কম। দেশটিতে করোনার প্রথম ঢেউয়ে এই হার তুলনামূলক অনেক বেশি ছিল। সে সময় অবশ্য টিকা পাননি ব্রিটিশ নাগরিকেরা।

সবকিছুর মধ্যে লোকজনকে টিকার বুস্টার ডোজ নিতে তাগিদ দিচ্ছে যুক্তরাজ্য সরকার। দেশটিতে ১২ বছরের বেশি ৬১ শতাংশ মানুষ এর মধ্যেই বাড়তি এই ডোজটি নিয়েছে। তবে এখনো অনেকেই টিকার কোনো ডোজ নেয়নি। তাদের টিকাদানের আওতায় আনতে তৎপরতা চালাচ্ছে সরকার।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন