বাইডেন আরও বলেন, প্রকাশ্যে পুতিনের হামলা নিয়ে আরও স্পষ্টভাবে কথা বলার জন্য বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানাতে জেলেনস্কি তাঁকে অনুরোধ জানিয়েছেন।
এদিকে কিয়েভ ও ইউক্রেনের অন্যান্য শহরে বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণের খবর পাওয়ার পরে বাইডেন বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্ররা রাশিয়ার ওপর বড় ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে।

এক বিবৃতিতে বাইডেন বলছেন, স্থানীয় সময় আজ বৃহস্পতিবার তিনি জি–৭ ভুক্ত দেশের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্রদেশগুলো রাশিয়ার ওপর বড় নিষেধাজ্ঞা দেবে।

বাইডেন আরও বলেন, ওয়াশিংটন ইউক্রেন ও ইউক্রেনের জনগণের প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে। তবে এ বিষয়ে তিনি বিস্তারিত কিছু জানাননি।

পূর্ব ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযানের অনুমোদন দিয়েছেন—পুতিনের এমন বক্তব্যের পর নিন্দা জানান বাইডেন। বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, পুতিন পূর্বপরিকল্পিত যুদ্ধ বেছে নিয়েছেন। এই যুদ্ধ মানবিক বিপর্যয় ডেকে আনবে। মৃত্যু ও ধ্বংসযজ্ঞের জন্য রাশিয়া দায়ী থাকবে—এমন মন্তব্য করে বাইডেন বলেন, এসবের জন্য বিশ্ব রাশিয়ার কাছে জবাবদিহি চাইবে।

বাইডেন আরও বলেন, আজ জি–৭ ভুক্ত দেশের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের আগপর্যন্ত হোয়াইট হাউস থেকে তিনি পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবেন। রাশিয়াকে হামলার কড়া জবাব দিতে ন্যাটোর দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা করবেন বলেও জানান বাইডেন।
রাশিয়ার এসবার ব্যাংক, ভিটিবির মতো বড় ব্যাংকগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে চান বাইডেন। সেই সঙ্গে দেশটির রপ্তানিও নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন