বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, এই নির্বাচন ভ্লাদিমির পুতিনকে বড় রকমের পরীক্ষায় ফেলবে। কারণ, সাম্প্রতিক সময়ে ক্রেমলিনের বাসিন্দাদের মধ্যে পুতিনবিরোধী মনোভাব ও তাদের জীবনযাত্রার মান পুতিনের জন্য খুব একটা সুখকর নয়। এর সঙ্গে পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে পুতিনের সম্পর্কও এখন খুব একটা ভালো নয়।

স্টোর থেকে সরিয়ে নেওয়া অ্যাপটি নাভালনি সমর্থকদের ক্রেমলিন-সংযুক্ত কোন প্রার্থীকে সংসদে ফিরিয়ে আনা উচিত—এ বিষয়ে একটি উদ্যোগের প্রচার করে আসছিল। এর আগে গুগল এবং অ্যাপলের বিরুদ্ধে নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ এনে তাদের স্টোর থেকে অ্যাপটি সরিয়ে নেওয়ার দাবি করেছিল রাশিয়া। নাভালনির দল ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম টেলিগ্রামকে বলেছে, ‘আমাদের বিরুদ্ধে পুরো রাশিয়া এমনকি প্রযুক্তি জায়ান্টরাও রয়েছে।’

এদিকে ৪৫০ আসনের রাজ্য ডুমায় ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড রাশিয়ার সর্বোচ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠতা ঝুঁকিতে রয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা। গত বছর এই আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার মাধ্যমেই পুতিন সহজেই সাংবিধানিক সংস্কার করতে পেরেছিলেন, যা তাঁকে আবারও প্রেসিডেন্ট পদে লড়াইয়ের সুযোগ করে দেয় এবং ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার সম্ভাবনা তৈরি করে দিয়েছে।

আজ শুক্রবার শুরু হওয়া এই ভোট গ্রহণ চলবে আগামী রোববার শেষরাত পর্যন্ত।
কেজিবির সাবেক কর্মকর্তা পুতিন আগামী মাসে ৬৯ বছরে পা দেবেন। তাঁর বর্তমান মেয়াদ ২০২৪ সালে শেষ হলে তিনি পুনরায় নির্বাচন করবেন কি না, এ বিষয়ে এখনো কিছু বলেননি। পুতিন ১৯৯৯ সাল থেকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বা প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন