বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের ওপর রাশিয়া আক্রমণ চালাতে পারে এমন আশঙ্কার মুখে দুই পক্ষ যখন একই অবস্থানে আটকে রয়েছে, তখন ন্যাটো-রাশিয়ার ওই বৈঠক হলো। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ওই বৈঠকের ফল জানা যায়নি।

গত মঙ্গলবার ন্যাটোর মার্কিন দূত জুলিয়ান স্মিথ সিএনএনকে বলেন, ‘এ মুহূর্তে পরিষ্কার করে বলতে চাই, ন্যাটোর বিস্তৃতি বাড়ানোর বিষয়ে নীতি পরিবর্তন করতে কারও পরামর্শ নেওয়া হবে না।’

যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, এই বৈঠক ন্যাটো-রাশিয়ার মধ্যে কোনো দ্বিপক্ষীয় বৈঠক নয়। এটা ন্যাটোর ৩০ সদস্যরাষ্ট্র এবং রাশিয়াকে ধরে ৩১ দেশের একটি ফোরামের বৈঠক।
পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে এ সপ্তাহে রাশিয়ার তিনটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হবে। এর আগে গত সোমবার রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা জেনেভায় সাত ঘণ্টার বেশি আলোচনা করেন। তবে ওই আলোচনায় গুরুত্বপূর্ণ কিছু অর্জিত হয়নি বলে দাবি করেছে ওয়াশিংটন। এরপর ন্যাটোর সঙ্গে আলোচনায় বসল মস্কো। আজ বৃহস্পতিবার ভিয়েনায় রাশিয়ার সঙ্গে বৈঠক হবে অর্গানাইজেশন ফর সিকিউরিটি অ্যান্ড কো-অপারেশন ইন ইউরোপ (ওএসসিই) নামের একটি সংগঠনের।

যে দেশের সমস্যা নিয়ে ওই বৈঠক, সেই ইউক্রেন মঙ্গলবার বলেছে, দেশটির নেতারা মনে করছেন, যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটো দেশগুলো বৈঠকের সময় আলোচনার পেছনে দেশটির ভাগ্য নির্ধারণে কোনো সিদ্ধান্ত নেবে না।

এদিকে এএফপি বলেছে, ইউক্রেনে মস্কোপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে লড়াইয়ে ইউক্রেনের এক সেনা নিহত হয়েছেন। বুধবার ইউক্রেনের পক্ষ থেকে এ অভিযোগ করা হয়। ইউক্রেন বলেছে, মঙ্গলবার ভারী মেশিনগান ও ছোট অস্ত্র নিয়ে দেশটির পূর্বাঞ্চলে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা সামরিক অবস্থানগুলোকে লক্ষ্যবস্তু বানায়।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন