default-image

রোগীদের আগুনের হাত থেকে বাঁচাতে গিয়ে দগ্ধ চিকিৎসক কাতালিন দেনসিউয়ের অবস্থা এখনো সংকটাপন্ন। তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বেলজিয়াম নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আজ বিবিসির খবরে এ তথ্য জানানো হয়।

গত শনিবার রোমানিয়ায় করোনা রোগীদের জন্য নির্ধারিত পিয়াত্রা নিমট একটি করোনা হাসপাতালের  নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) প্রথমে আগুন লাগে। পরে তা আইসিইউর পাশের কক্ষে ছড়িয়ে পড়ে। আগুন থেকে রোগীদের বাঁচাতে গিয়ে দগ্ধ হন চিকিৎসক কাতালিন।

ওই অগ্নিকাণ্ডে ১০ জন রোগী মারা গেছেন। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে সাতজন পুরুষ ও তিনজন নারী। তাঁদের বয়স ৬৭ থেকে ৮৬ বছর। এ ছাড়া ছয়জন দগ্ধ হয়েছেন। তাঁদের আইসি শহরের অন্য একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সরকারি এই হাসপাতালে কীভাবে আগুন লাগল, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ক্লস আইওহানিস।

চিকিৎসক কাতালিনকে বেলজিয়ামের কুইন আসট্রিড সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। তাঁর শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে গেছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ক্লস আইওহানিস তাঁকে ‘নায়ক’ বলে অভিহিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

দেশটির প্রেসিডেন্ট এই ঘটনাকে ‘বড় ধরনের ট্র্যাজেডি’ বলে মন্তব্য করেছেন। ভবিষ্যতে যাতে আর এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে, সে জন্য বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হবে।

স্থানীয় খবরে বলা হয়, একটি মেডিকেল সরঞ্জামে আগুন লাগে। কাছেই ছিল অক্সিজেন সিলিন্ডার। আঞ্চলিক কর্মকর্তারা বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে না জানিয়ে ওই ইউনিটটিকে তৃতীয় তলা থেকে দ্বিতীয় তলায় সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

রোমানিয়ায় এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৬০ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে প্রায় ৯ হাজার জনের। গত শনিবার দেশটির বিভিন্ন হাসপাতালে ১৩ হাজার করোনা রোগী চিকিৎসাধীন। তাঁদের মধ্যে ১ হাজার ১৬৯ জন ছিলেন আইসিইউতে।

মন্তব্য পড়ুন 0