বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, ঘটনাটি গত মঙ্গলবারের, যুক্তরাজ্যের লন্ডনের মেট্রোরেলে। ডিজিটাল বিপণন পেশায় যুক্ত ডেইজি মরিস মেট্রোর বগিতে ভুলে ল্যাপটপ ও ব্যাগ ফেলে নেমে যান। প্ল্যাটফর্মের অর্ধেক পথ পেরিয়ে আসার পর তাঁর মনে পড়ে, ল্যাপটপটা ট্রেনেই রয়ে গেছে। কিন্তু ততক্ষণে ট্রেন ছেড়ে দিয়েছে। জরুরি ব্যবসায়িক নথিপত্রসহ ল্যাপটপ হারিয়ে রীতিমতো মুষড়ে পড়েন তিনি। যোগাযোগ করেন ট্রেন পরিচালনাকারীদের সঙ্গে। তাঁরা তাঁকে একটি ফরম পূরণ করতে বলেন। জানান, ল্যাপটপটি ফিরে পেতে সাত দিন সময় লাগতে পারে।

হারানো ল্যাপটপটিতে ডেইজির জরুরি ব্যবসায়িক নথি ছিল। তাঁর পক্ষে সাত দিন অপেক্ষা করা সম্ভব ছিল না। তিনি বলেন, ‘সাত দিন অপেক্ষা করার কথা শুনে আমি কেঁদে ফেলেছিলাম।’ এরপর তিনি নতুন ল্যাপটপ কেনার সিদ্ধান্ত নেন। ওই সময় বেজে ওঠে ফোন। অপর প্রান্ত থেকে একজন বলেন, তাঁর নাম নাহিদ। তিনি মেট্রোরেলের বগিতে একটি ল্যাপটপ খুঁজে পেয়েছেন। সেটির পর্দায় মালিকের নাম দেখে গুগলে তাঁর লিংকডইন অ্যাকাউন্ট খুঁজেছেন। সেখান থেকে ফোন নম্বর পেয়ে কল করেছেন ল্যাপটপটি ফিরিয়ে দিতে।

অল্প সময়ের ব্যবধানে সম্পূর্ণ অপরিচিত একজনের কাছ থেকে ল্যাপটপ ফেরত পেয়ে ভীষণ খুশি হন ডেইজি। ধন্যবাদ জানিয়ে নাহিদকে বার্তা পাঠান। পুরো ঘটনা লিখে তিনি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেন। তিনি লিখেছেন, ‘আমার লিংকডইন অ্যাকাউন্টটি কাজে এসেছে। হারানো ল্যাপটপ ফিরে পেয়েছি।’

ল্যাপটপ ফিরিয়ে দেওয়ায় নাহিদকে ধন্যবাদ দিয়ে ডেইজি লেখেন, ‘আপনি যা করেছেন, সেটা অনেক মানুষই করবে না। আমি আপনাকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই।’ ডেইজির ওই পোস্টে ২৬ হাজারের বেশি মানুষ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। অনেকেই নাহিদের উদারতার প্রশংসা করেছেন।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন