বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, রুশ বাহিনী খারকিভ, জাপোরিঝিয়া, ইরপিন ও দানিপ্রোপেত্রভেস্ক ও মাইক্রোলাইভ বন্দর অঞ্চলে ১৬টি সামরিক স্থাপনা ধ্বংস করেছে। রুশ বিমানবাহিনী ইউক্রেনের সেনা সমাবেশ করা ১০৮টি অঞ্চলে বিমান হামলা চালিয়েছ। খারকিভে হামলায় নিহত হয়েছেন তিনজন।

মারিউপোলে রুশ দখল ঠেকাতে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন ইউক্রেনের সেনারা।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভেও বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া গেছে। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় লুহানস্ক শহরের বাসিন্দাদের জরুরি ভিত্তিতে নিরাপদে সরে যাওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। সামনের সপ্তাহটা কঠিন হতে পারে উল্লেখ করে আঞ্চলিক প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ আহ্বান জানানো হয়।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, রুশ সামরিক বাহিনী গত রোববার রাতভর ইউক্রেনের ৩১৫টি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে। লক্ষ্যবস্তুর মধ্যে অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জামের গুদাম রয়েছে। একই সঙ্গে রুশ বাহিনী ইউক্রেনের দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে। ডুবে যাওয়া যুদ্ধজাহাজ মস্কভার বেঁচে থাকা নাবিকদের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। ডুবে যাওয়ার পর এই প্রথম রুশ যুদ্ধজাহাজটির নাবিকদের দেখা গেল।

ইউক্রেনের অন্যতম বৃহত্তম শহর মারিউপোল নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল রাশিয়া। তবে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী দাবি করেছেন, মারিউপোল এখনো রুশ সেনাদের দখলে যায়নি। ইউক্রেনের সেনারা লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে কিয়েভ সফরের আহ্বান জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। জেলেনস্কির আশা, বাইডেন কিয়েভ সফর করবেন।

গতকাল ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযান ৫৫তম দিনে গড়িয়েছে।

আজ ১৯ এপ্রিল ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযান ৫৫তম দিনে গড়িয়েছে। ইউক্রেনের জাতীয় রেলওয়ের প্রধান আলেকজান্ডার কামিশিন বলেছেন, তাঁদের কিছু অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে পরিষেবাগুলোতে বিলম্ব হতে পারে।

বিবিসি জানায়, স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেছেন, খারকিভের মধ্যাঞ্চলে নতুন করে গোলা হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী। দক্ষিণাঞ্চলীয় মিকোলাইভ শহর ও আশপাশের এলাকাগুলোতেও ব্যাপক রকেট হামলা হচ্ছে। মিকোলাইভের গভর্নর ভিতালি কিম বিবিসিকে বলেন, বন্দর নগরী ওডেসার দিকে রুশ বাহিনীর অগ্রসর প্রচেষ্টা থমকে দিয়েছে ইউক্রেনীয় বাহিনী।

এদিকে রাশিয়ার পক্ষ থেকে বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্যবস্তু করার কথা অস্বীকার করা হয়েছে। রাশিয়ার অভিযোগ, শান্তি আলোচনা বাধাগ্রস্ত করতে ইউক্রেন নৃশংসতার নাটক সাজাচ্ছে।

মস্কোতে প্রায় দুই লাখ কর্মী চাকরি হারাতে পারেন

রাশিয়ায় থাকা বিদেশি কোম্পানিগুলোর প্রায় দুই লাখ কর্মী চাকরি হারাতে পারেন।

মস্কোর মেয়র সার্গেই সোবিয়ানিন সোমবার এ আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের কারণে বিভিন্ন দেশের আরোপ করা নিষেধাজ্ঞার কারণে এমনটা হতে পারে। সার্গেই সোবিয়ানিন এক ব্লগ পোস্টে বলেছেন, ‘আমাদের হিসাবে প্রায় দুই লাখ লোক কাজ হারানোর ঝুঁকিতে আছেন।’ কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে সহায়তার জন্য গত সপ্তাহে কর্তৃপক্ষ ৪ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার অনুমোদন দিয়েছে।

ইউক্রেন থেকে যুক্তরাজ্যের দুজনকে গ্রেপ্তার করেছেন রুশ সেনারা

স্পুতনিক জানায়, ইউক্রেনে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নেওয়ার অভিযোগে যুক্তরাজ্যের দুই নাগরিককে আটক করেছে রুশ বাহিনী। ইউক্রেনে আটক রাশিয়াপন্থী রাজনীতিক ভিক্টর মেদভেদচুকের সঙ্গে নিজেদের বিনিময়ের আহ্বান জানিয়েছেন তাঁরা। এ কাজে তাঁরা সহায়তা চেয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কাছে। গত মঙ্গলবার মেদভেদচুককে আটক করে ইউক্রেনের নিরাপত্তা বাহিনী। পরে গত শনিবার বন্দী বিনিময়ের বিষয়ে যুক্তরাজ্য সরকারের কাছে সহায়তা চাওয়ার জন্য আটক দুই ব্রিটিশ যোদ্ধার প্রতি আহ্বান জানান মেদভেদচুকের স্ত্রী।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন