default-image

এত দিন ধর্মভিত্তিক রাজনীতি করেছেন ভারতের কট্টর হিন্দু জাতীয়তাবাদী সংগঠন শিবসেনার প্রধান উদ্ধব ঠাকরে। বিজেপির সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে এত দিন রাজনীতি করে এলেও মহারাষ্ট্রের গত বিধানসভার নির্বাচনে সে বাঁধন আলগা হয়ে গেছে। এখন তিনি বিরোধী রাজনৈতিক আদর্শে বিশ্বাসী কংগ্রেস ও এনসিপির সঙ্গে জোট করে ক্ষমতায়। তাই আগে বিজেপির সঙ্গে জোট বাঁধাকে ভুল হিসেবে দেখছেন তিনি।

ভুল স্বীকার করে উদ্ধব বলেছেন, ‘রাজনীতির সঙ্গে ধর্ম জুড়ে আমরা ভুল করেছিলাম।’ ভারতে নাগরিক সংশোধনী আইন নিয়ে চলমান বিতর্কের মধ্যে বিজেপির খোঁচার জবাব উদ্ধব ঠাকরের এ স্বীকারোক্তি এখন আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে বলেছে, মহাভারতের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে উদ্ধব ঠাকরে বলেছেন, ‘ভুলে গেলে চলবে না ধর্ম হেরেছিল জুয়ার কাছে। তাই এটাকে সঠিক জায়গায় রাখতে হবে। আমরা সেটা ভুলে গিয়েছিলাম। উল্টো ধর্ম ও রাজনীতি মিশিয়ে ফেলেছিলাম, যার থেকে আমরা শিক্ষা নিয়েছি।’

মহারাষ্ট্রের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বিধানসভার বিরোধী দলনেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ খোঁচা দিয়েছিলেন উদ্ধবকে। তিনি বলেছিলেন, শিবসেনা দলের ঘোষিত নীতির উল্টো পথে হাঁটছে। বিরোধী রাজনৈতিক আদর্শে বিশ্বাসী কংগ্রেস ও এনসিপির সঙ্গে জোট করেছে। শিবসেনা বলছে, ফড়নবিশের জবাবই উদ্ধব ঠাকরে দিয়েছেন।

উদ্ধব বিজেপিকে খোঁচা দিয়েছেন জোট শরিক নির্বাচনের প্রসঙ্গ তুলে। বিজেপিও বিপরীত মতাদর্শে বিশ্বাসী তৃণমূল কংগ্রেস, রামবিলাস পাসোয়ানের এলজেপি এবং পিডিপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল বলে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

উদ্ধব বলেছেন, ‘ধর্ম কেবল মুখে বলার বিষয় না। সেটা অনুসরণ করতে হয়। বইতে কেবল ধর্ম বন্দী না। বাস্তবেও তার বিচরণ আছে। ২৫ বছর ধরে আমরা আপনাদের সঙ্গে ছিলাম শুধু হিন্দুত্ব নীতির ওপর ভর করে। আমরা ধর্ম পরিবর্তন করিনি। মাথায় রাখতে হবে রাজনীতি একটা জুয়া।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন