আইএএস পরীক্ষায় সেরা ফয়সাল এবার রাজনীতিও ছাড়লেন

বিজ্ঞাপন
>শাহ ফয়সাল ২০১০ সালে মাত্র ২৬ বছর বয়সে আইএএস পরীক্ষায় দেশের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করে তাক লাগিয়ে দেন। সরকারি আমলা হিসেবে গত বছর তাঁর চাকরি ছাড়ার ঘোষণাও ব্যাপক আলোচিত হয়
default-image

চাকরির পরীক্ষায় সেরা হয়ে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন সরকারি আমলা হিসেবে। গত বছর সেই চাকরি ছেড়ে রাজনীতিতে নামেন। নতুন দলও গঠন করেন। আজ সোমবার নিজের প্রতিষ্ঠা করা সেই দল থেকেই পদত্যাগ করলেন। তিনি ভারতের জম্মু-কাশ্মীরের শাহ ফয়সাল। বয়স ৩৭ বছর।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শাহ ফয়সালের গঠন করা রাজনৈতিক দলের নাম ‘জম্মু অ্যান্ড কাশ্মীর পিপলস মুভমেন্ট’। গত বছর সরকারি চাকরি ছাড়ার পর পরই ফয়সাল এই রাজনৈতিক দলটি গঠন করেন। আজ সোমবার দলের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘শাহ ফয়সাল রাজ্য দলের নির্বাহী সদস্যদের জানিয়েছেন যে, রাজনৈতিক কর্মসূচি চালানোর মতো অবস্থায় তিনি এখন নেই। সংগঠনের রাজনৈতিক দায়িত্ব থেকে তিনি মুক্ত হতে চান। এমন অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতেই দল তাঁর এই আবেদন মঞ্জুর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

গত বছরের জানুয়ারিতে সরকারি চাকরি ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন শাহ ফয়সাল। ভারতে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় শীর্ষস্থান (আইএএস) দখল করে ভূস্বর্গের তরুণ প্রজন্মের আইকন হয়ে ওঠেন শাহ ফয়সাল। ২০১০ সালে মাত্র ২৬ বছর বয়সে আইএএস পরীক্ষায় দেশের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। সরকারি আমলা হিসেবে তাঁর চাকরি ছাড়ার ঘোষণাও ব্যাপক আলোচিত হয়েছিল।

কাশ্মীরিদের জীবনের মূল্য আছে-এক টুইট বার্তায় এ কথা লিখে ফয়সাল চাকরিতে ইস্তফা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। ওই সময় বলা হয়েছিল, শাহ ফয়সাল বিজেপি সরকারের বিরাগভাজন হয়েছিলেন। ফেসবুকে চাকরি ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে ফয়সাল লিখেছিলেন, ‘কাশ্মীরিদের হত্যা’ ও ‘হিন্দুত্ববাদীদের হাতে মুসলিমদের কোণঠাসা হওয়ার’ প্রতিবাদে সিভিল সার্ভিস থেকে ইস্তফা দিচ্ছেন তিনি।

সোমবার রাজনীতি ছাড়ার ঘোষণা দিলেও নিজের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে কিছু জানাননি শাহ ফয়সাল। জম্মু-কাশ্মীরের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো অবশ্য বলছে, ফের প্রশাসনের চাকরিতে ফিরে যেতে পারেন তিনি।

গত বছরের আগস্টে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার। ওই ঘটনার পর পরই কাশ্মীরের অসংখ্য স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাকে আটক করা হয়েছিল। তখন ৩৭ বছর বয়সী ফয়সালকেও আটক করা হয়। গত মাসে মুক্তি পান তিনি। এরপরই এল তাঁর রাজনীতি ছাড়ার সিদ্ধান্ত।

আরও পড়ুন:

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন