default-image

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে অক্সিজেনের ঘাটতির কারণে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীর মৃত্যু দিন দিন বাড়ছে। এ পরিস্থিতিতে নতুন নির্দেশনা জারি করেছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। খবর এনডিটিভির।

ভারতের সর্বোচ্চ আদালত কেন্দ্রীয় সরকারকে বলেছেন, আজ সোমবারে মধ্যে অথবা আজ মধ্যরাতের মধ্যে দিল্লির অক্সিজেন–ঘাটতি অবশ্যই পূরণ করতে হবে। এমন সময়ে এ নির্দেশনা আসছে, যখন আজ সকাল থেকে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৯২ হাজারের বেশি মানুষ।

বিজ্ঞাপন

এদিকে অক্সিজেনের এই ঘাটতি মোকাবিলায় আরও কিছু নির্দেশনা জারি করেছেন সুপ্রিম কোর্ট। আদালত আদেশ দিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারকে দিল্লির সরকারের সঙ্গে কাজ করতে হবে অক্সিজেনের মজুত নিশ্চিত করতে, যাতে জরুরি ভিত্তিতে সেই অক্সিজেন ব্যবহার করা যায়। এই মজুত অক্সিজেন একটি স্থানে সংরক্ষণ করা যাবে না। বিভিন্ন স্থানে তা মজুত করতে হবে।

দিল্লিতে অক্সিজেন সরবরাহের বিষয়ে গত শুক্রবার শুনানির পর ৬৪ পৃষ্ঠার একটি আদেশ জারি করেছেন বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচুদ, এল এন রাও এবং এস রবীন্দ্র ভাটের বেঞ্চ।

ভারতের রাজধানীতে অক্সিজেন সরবরাহ নিয়ে গত শনিবার দিল্লির হাইকোর্টেও একটি শুনানি হয়েছে। এই শুনানিতে কেন্দ্রীয় সরকারকে সতর্ক করে বলা হয়েছে, দিল্লি শহরের জন্য বরাদ্দ অক্সিজেনের প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে হবে।

আদালত বলেন, ‘অনেক হয়েছে। কেউ বলছে না, দিল্লির যেটুকু পাওয়ার কথা তার থেকে বেশি অক্সিজেন দিতে হবে। আপনারা যদি (কেন্দ্রীয় সরকার) অক্সিজেনের সরবরাহ নিশ্চিত করতে না পারেন, তবে আজ এর ব্যাখ্যা চাই।’

বিজ্ঞাপন

তবে অক্সিজেনের ঘাটতি যে এখনই পূরণ হচ্ছে না, তা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে প্রতিদিনের জন্য ৯৭০ মেট্রিক টন অক্সিজেন চেয়েছিলেন। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার শনিবার থেকে দিল্লির জন্য অক্সিজেনের ব্যবস্থা করেছে ৫৯০ মেট্রিক টন। এর আগে এই পরিমাণ ছিল ৪৯০ মেট্রিক টন।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন