বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় স্বাস্থ্য দপ্তরের জ্যেষ্ঠ পরিচালক অভিজিৎ রায় বলেন, করোনা এই দূর দ্বীপে হানা দিয়েছে। গত কয়েক মাসে এ দ্বীপে যেসব পর্যটক এসেছেন, তাঁদের সবার করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। কিন্তু মনে হচ্ছে এই ভাইরাস থাকা কোনো ব্যক্তির করোনা শনাক্ত করা যায়নি।

ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ গত কয়েক দিনে ৭০ হাজারের বেশি হচ্ছে। দেশটিতে ৩১ লাখের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৬০ হাজারের বেশি। প্রথমে সংক্রমণ দিল্লি, চেন্নাই, মুম্বাইয়ের মতো বড় শহরগুলোতে থাকলেও এখন তা প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।

অভিজিৎ রায় বলেন, গ্রেট আন্দামানিজ জনজাতির মানুষের মধ্যে যাঁরা আক্রান্ত, তাঁদের চারজনের বয়স ২৬ থেকে ৫৫ বছর। তাঁদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তবে কারও মধ্যে কোনো বড় ধরনের উপসর্গ নেই। ছয়জনকে বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

ডা. রায় বলেন, এসব দ্বীপে ভ্রমণের বিষয়ে এখন আরও কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। কারও টেস্টে নেগেটিভ না এলে তাঁকে দ্বীপে যেতে দেওয়া হচ্ছে না।
গ্রেট আন্দামানিজ জনজাতির মানুষের করোনা–আক্রান্ত হওয়ার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতের জনজাতিবিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুন মুন্ডা। তিনি বলেছেন, তাঁদের নিরাপদে রাখতে সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে।

১৭৮৮ সালে যখন ব্রিটিশরা এ দ্বীপপুঞ্জে প্রথম অভিযান চালায়, তখন গ্রেট আন্দামানিজদের সংখ্যা ছিল পাঁচ থেকে আট হাজারের মধ্যে। গ্রেট আন্দামানিজসহ সেখানে মোট জনজাতির সংখ্যা ছিল ১০টি। এখন সংখ্যা ৫৯। আর যেসব জাতিসত্তা এখনো টিকে আছে, তাদের মধ্যে সোম্পেনদের সংখ্যা ২০০, সেন্টেলেনিদের সংখ্যা ১৫০ ও জারোয়াদের সংখ্যা ৪০০।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন