বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মেঘরাজের বিরুদ্ধে স্থানীয় জনতার অভিযোগ, তিনি হাসান জেলার মহারাজা পার্কে একটি মেয়ের সঙ্গে বাজে ব্যবহার করেছেন। মেয়েটিকে তিনি উত্ত্যক্ত ও হেনস্তা করেছেন।

স্থানীয় লোকজনের ভাষ্য, মেঘরাজ পার্কে ঘোরাঘুরি করছিলেন। এ সময় তাঁকে একটি মেয়েকে উত্ত্যক্ত করতে দেখেন কিছু লোক। এ অভিযোগে মেঘরাজকে ধরা হয়।

মেঘরাজকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করার পরিবর্তে তাঁকে বেদম মারধর করে একদল লোক। মারতে মারতে তাঁর পরনের পোশাক খুলে নেওয়া হয়। তাঁকে নগ্ন করে একটি ব্যস্ত ট্রাফিক জংশনে ঘোরানো হয়।

পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে। তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। একই সঙ্গে মেঘরাজকে হেফাজতে নেয় পুলিশ।

ঘটনার বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়ার পর মেঘরাজকে মারধর ও নগ্ন করে ঘোরানোর অভিযোগে অজ্ঞাত চার ব্যক্তির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে হাসান নগর পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ঘটনাস্থলে থাকা কিছু মানুষ বলেছেন, মেঘরাজের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ দেয়নি মেয়েটি। যেহেতু মেঘরাজকে নির্মমভাবে মারধর করা হয়েছে, তাঁকে নগ্ন করে জনসমক্ষে ঘোরানো হয়েছে, তাই তিনিই পুলিশের কাছে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাঁর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ অজ্ঞাত চার ব্যক্তির বিরুদ্ধে এফআইআর নথিভুক্ত করেছে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন