default-image

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা তৃণমূল কংগ্রেসকে উদ্দেশ করে বলেছেন, ‘এবার খেলা শেষ হবে মমতাদি। এখন আর চণ্ডীপাঠ করে কী হবে? এত দিন কী করেছেন আপনি? সময় চলে যাওয়ার পর চণ্ডীপাঠ করে কোনো লাভ হবে না। তৃণমূলকে বিদায় করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে বাংলার মানুষ।’

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়ার কোতলপুরে আজ মঙ্গলবার ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) আয়োজিত এক জনসভায় যোগ দিয়ে জেপি নাড্ডা এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেছেন, ‘এবারই হবে এই বাংলার আসল পরিবর্তন। ক্ষমতায় আসবে বিজেপি। এই বাংলায় আয়ুষ্মান ভারত চালু হবে। চালু হবে কৃষাণ সম্মাননিধি প্রকল্প। বাংলায় আসবে গণতন্ত্র।’ ভয়মুক্ত বাংলা গড়ার জন্য বিজেপিকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান নাড্ডা।

অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ায় আজ মঙ্গলবার বিজেপি আয়োজিত এক নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দিয়ে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন, ‘এই বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলে তৃণমূলের গুন্ডাদের বেছে বেছে মারা হবে। তৃণমূলের হাতে আর মাত্র ৪৫ দিন সময় রয়েছে। ২ মের পর তৃণমূলের বিদায় নিশ্চিত।’ বলরামপুর বিধানসভার বিজেপির প্রার্থী বানেশ্বর মাহাতোর সমর্থনে আয়োজিত জনসভায় এ কথা বলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

এদিকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাঁকুড়ার ছাতনায় তৃণমূল আয়োজিত এক নির্বাচনী জনসভায় বলেছেন, ‘সিপিএম থেকে আসা কিছু গুন্ডা আমাদের দলে ছিল। ছিল কিছু মীরজাফর, বিশ্বাসঘাতক। তাদের তাড়ানোর আগেই ওরা চলে গেছে। আমি বেঁচে গেছি। তাই তৃণমূল এখন মানুষের দল হয়েছে।’

মমতা আরও বলেন, ‘বিজেপি এমন একটা রাজনৈতিক দল যারা দাঙ্গা লাগায়, লুট করে, গুন্ডামি করে। টাকার ভান্ডার নিয়ে ঘুরে বেড়ায়। ওরা নোটবন্দী করে মানুষের টাকা লুট করেছে। লুট করেছে কোটি কোটি টাকা। সেই টাকার হিসাব নেই। ভোটে জেতার জন্য ওরা সেই টাকা নিয়ে মাঠে নেমেছে।’ এ সময় বাংলার মানুষকে ক্ষমতায় আসতে দেওয়ার আহ্বান জানান মমতা।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন