ভারতের প্রবীণ কমিউনিস্ট নেতা ও সিপিএমের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির বড় ছেলে আশীষ ইয়েচুরি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে আশীষের মৃত্যু হয়। আগামী ৯ জুন আশীষ ৩৫ বছরে পা রাখতেন। আশীষ ইয়েচুরি পেশায় সাংবাদিক ছিলেন।

১২ এপ্রিল আশীষের কোভিড পজেটিভ ধরা পড়লে তাঁকে গুরুগাঁওয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেই হাসপাতালে করোনার সঙ্গে লড়াই করে আশীষ আজ সকালে শেষবিদায় নেন।

আজ সকালে এক টুইটবার্তায় সীতারাম ইয়েচুরি পুত্রের মৃত্যুসংবাদটি জানান। তাঁর ছেলেকে বাঁচিয়ে রাখতে আপ্রাণ চেষ্টা করার জন্য সীতারাম হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ধন্যবাদ জানান।

সীতারাম ইয়েচুরি সিপিএমের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিযুক্ত রয়েছেন ২০১৫ সাল থেকে। তিনি ভারতের আইনসভার উচ্চকক্ষ রাজ্যসভারও সাংসদ ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি এখন সিপিএমের পলিটব্যুরোরও সদস্য। ইয়েচুরির স্ত্রী সীমা চিশতি সাংবাদিক ছিলেন। তিনি বিবিসির দিল্লির হিন্দি বিভাগের সম্পাদক ছিলেন। ছিলেন ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকার দিল্লির আবাসিক সম্পাদকও। মায়ের অনুপ্রেরণায় আশীষ ইয়েচুরি সাংবাদিকতার পেশা গ্রহণ করেন। সীতারাম ইয়েচুরি কেরালার বাসিন্দা হলেও তিনি সাবলীলভাবে বাংলা বলতে পারেন।

আশীষ ইয়েচুরির মৃত্যুতে সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটি গভীর শোক প্রকাশ করেছে। পশ্চিমবঙ্গেও আশীষ ইয়েচুরির মৃত্যুতে সিপিএম নেতারা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করেছেন।

আশীষ ইয়েচুরির মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা শশি থারুর, তৃণমূল কংগ্রসের মুখপাত্র ডেরেক ও ব্রায়ান।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন