করোনা মোকাবিলায় কেরালার প্রশংসায় পঞ্চমুখ অমর্ত্য সেন ও নোয়াম চমস্কি

বিজ্ঞাপন
default-image

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন এবং মার্কিন বুদ্ধিজীবী, চিন্তাবিদ ও লেখক নোয়াম চমস্কি কেরালার কোভিড -১৯ প্রশমন প্রচেষ্টার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। গতকাল শুক্রবার প্রচারিত ভারত সরকারের আয়োজনে 'কেরালা ডায়লগ' নামের এক আলোচনা অনুষ্ঠানে করোনাভাইরাস উত্তর বিশ্ব নিয়ে আলোচনা হয়।

বার্তা সংস্থা আইএএনএসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারত সরকারের দাবি, 'কেরালা ডায়লগ' আলোচনা সিরিজের মাধ্যমে বুদ্ধিজীবী ও বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে নতুন ধারণা এবং উন্নয়নের গ্রহণ করার প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। প্যানেল আলোচনায় আরও অংশ নেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথান ও সাংবাদিক এন. রাম।
অমর্ত্য সেন বলেন, কেরালা কেন ভালো কাজ করেছে, তার মূল কারণ হলো রাজ্য জনশিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে তারা বিশাল পদক্ষেপ নিয়েছে। এ রাজ্য বছরের পর বছর অনেক মানুষকে ভুল প্রমাণিত করেছে। অনেকেই ধারণা করেছিলেন, রাজ্যের জনকল্যাণমুখী উন্নয়ন শেষ পর্যন্ত ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবে। বরং এখানেই বর্তমানে দেশের সর্বোচ্চ কয়েকটি মানব বিকাশের সূচক দেখা যায়।

কেরালার প্রশংসা করে অমর্ত্য সেন বলেন, 'কেরালা কোভিড মহামারি যেভাবে পরিচালনা করেছে, এতে তারা গর্ব করতে পারে। তবে যে লকডাউনটি দেশে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছিল, তা সঠিক থাকলে এতে সন্দেহের অবকাশ থাকে। রাজনৈতিক দল বা জনগণের জন্য এ নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি।'

অন্যদিকে চমস্কি বলেন, কেরালার মতো মহামারিটি খুব কম জায়গায়ই পরিচালিত হয়েছে। ভিয়েতনাম একটি দেশ, যেখানে কোনো মৃত্যুর ঘটনা ছাড়াই মহামারি মোকাবিলা করতে দেখা গেছে। মনে রাখতে হবে, তাদের চীনের সঙ্গে ১৪০০ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়াও এটি ভালোভাবে সামলেছে। নিউজিল্যান্ড, তাইওয়ানের মতো দেশও ভালো করেছে। তবে যুক্তরাষ্ট্র এটি সামলাতে ব্যর্থ হয়েছে এবং সেখানে মৃত্যু লাখ ছাড়িয়ে বেড়েই চলেছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন