default-image

ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের শিবমোগা এলাকায় একটি পাথরখনিতে বিস্ফোরণে আটজন নিহত হয়েছেন। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে পার্শ্ববর্তী চিকমাগালুর ও দাভানগেরে এলাকাও কেঁপে ওঠে। খবর এনডিটিভি ও হিন্দুস্তান টাইমসের।

স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১০টা ২০ মিনিটের দিকে শক্তিশালী ওই বিস্ফোরণ হয়। প্রাথমিকভাবে বিস্ফোরণের সুনির্দিষ্ট কারণ জানা যায়নি। পুলিশ বলেছে, বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থলে কিছু ডিনামাইট অবিস্ফোরিত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

এ ঘটনায় বোমা নিষ্ক্রিয়করণ স্কোয়াডকে ডাকা হয়। ঘিরে ফেলা হয় গোটা এলাকা। বিস্ফোরণে যাঁরা মারা গেছেন, তাঁরা একটি ট্রাকে পাথরখনির উদ্দেশে বিস্ফোরক নিয়ে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে। বিস্ফোরণের পর ট্রাকটি দুমড়ে-মুচড়ে গেছে।

খননকাজের জন্য বিস্ফোরক নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। তাতেই বিস্ফোরণ হয়। ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় মৃতদেহগুলো। বিস্ফোরণের মাত্রা এত বেশি ছিল যে নিহত ব্যক্তিদের শনাক্ত করা দুষ্কর হয়ে পড়ে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে জানা যায়, স্থানীয় জেলা প্রশাসক কে বি শিবকুমার বলেছেন, হুনাসোন্ডি গ্রামের কাছে রেলের পাথর কাটার জায়গায় ডিনামাইট বিস্ফোরণ হয়েছে। এতে নিহত হয়েছেন অন্তত আটজন। নিহত ব্যক্তির সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এক প্রত্যক্ষদর্শী রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা পিটিআইকে জানান, বিস্ফোরণে একাধিক বাড়ির জানালার কাচ ভেঙে পড়ে। ফাটল সৃষ্টি হয় বিভিন্ন রাস্তা ও বাড়িতে।

এস রাভি নামে স্থানীয় পুলিশের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এনডিটিভিকে বলেন, ঘটনাস্থলে দুজনের লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পাথরখনির ভেতরে আরও অনেকের লাশ রয়েছে বলে ধারণা করছেন তাঁরা।

বিস্ফোরণে চারপাশ কেঁপে ওঠায় অনেকে ভেবেছিলেন ভূমিকম্প হয়েছে। ভূতত্ত্ববিদেরা বলেছেন, কোথাও ভূমিকম্প হয়নি।

পিটিআইয়ের বরাতে হিন্দুস্তান টাইমস বলেছে, খননকাজের জন্য বিস্ফোরক নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। তাতেই বিস্ফোরণ হয়। ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় মৃতদেহগুলো। বিস্ফোরণের মাত্রা এত বেশি ছিল যে নিহত ব্যক্তিদের শনাক্ত করা দুষ্কর হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন শিবমোগার পুলিশ সুপারসহ জেলা প্রশাসন ও পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা।

শিবমোগা কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পার নিজ জেলা। ওই ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। বিস্ফোরণের পর বাড়িঘরের ভেঙে পড়া জানালার কাচ, ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন ভবন ও রাস্তায় নেমে আসা আতঙ্কিত মানুষের অবস্থান করার ছবি টুইটারে পোস্ট করেন অনেকে।

এ ঘটনায় শোক জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেছেন, ‘শিবমোগায় প্রাণহানির খবরে আমি ব্যথিত। শোকাহত পরিবারগুলোকে সমবেদনা জানাচ্ছি। আহত ব্যক্তিদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি। রাজ্য সরকার যাবতীয় সহায়তা দিচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন