default-image

পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় অ্যান্টিজেন পদ্ধতিতে করোনার নমুনা পরীক্ষা শিগগির শুরু হচ্ছে। এই পরীক্ষায় দ্রুত ফল পাওয়া যাবে।

কাল বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কলকাতার চেতলায় অ্যান্টিজেন পদ্ধতিতে নমুনা পরীক্ষা কর্মসূচির উদ্বোধন করা হবে। উদ্বোধন করবেন রাজ্যের পৌরমন্ত্রী, কলকাতার সাবেক মেয়র ও বর্তমান মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

অ্যান্টিজেন পদ্ধতিতে পরীক্ষা চলবে কলকাতার ১৬টি বড় এলাকায়। এসব এলাকায় প্রতিদিন ৮০০ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হবে।

গতকাল মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, এখন রাজ্যে প্রতিদিন ১৬ থেকে ১৭ হাজার করোনার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে। রাজ্যের ৫৬টি ল্যাবে। রাজ্যে নমুনা পরীক্ষা বাড়ছে। তাই করোনা শনাক্তের হারও বাড়ছে। ফলে এ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যে করোনা প্রতিরোধে সার্বিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

মমতার ঘোষণা অনুযায়ী, আজ বুধবার সকাল ছয়টা থেকে পশ্চিমবঙ্গজুড়ে শুরু হয়েছে সাপ্তাহিক লকডাউনের প্রথম দিন। পবিত্র ঈদুল আজহার জন্য এ সপ্তাহের দ্বিতীয় দিনের পূর্ণ লকডাউন হবে না। আগস্ট মাসে সাপ্তাহিক পূর্ণ লকডাউন চলবে সাত দিন।

আজ লকডাউনে খোলেনি রাজ্যের দোকানপাট, অফিস-আদালত, হাটবাজার। চলছে না গণপরিবহন। মানুষের চলাচলও বন্ধ। পরিস্থিতি অনেকটা বন্ধ্-এর মতো।

গতকাল রাজ্য সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা জানান, পশ্চিমবঙ্গে লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে। রাজ্যের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবসের দিন থেকে এক দিন অন্তর এক দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার উদ্যোগ নেওয়া হতে পারে।

গতকাল সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর প্রকাশিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে জানানো হয়, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছে ২ হাজার ১৩৪ জন। মারা গেছে ৩৮ জন।

সব মিলিয়ে পশ্চিমবঙ্গে করোনায় সংক্রমিত হলো ৬২ হাজার ৯৬৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৪৪৯ জনের।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সুস্থ ২ হাজার ১০৫ জন। সব মিলিয়ে সুস্থ ৪২ হাজার ২২ জন।

গতকাল নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৭ হাজার ২১ জনের। রাজ্যে এখন পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮ লাখ ৩৯ হাজার ২১১ জনের।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন