ভারতীয় শীর্ষ গোয়েন্দা সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস উইংয়ের (র) সাবেক প্রধান অমরজিৎ সিং দুলাত বলেছেন, ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের মূলধারার রাজনীতিক ও রাজনৈতিক দলগুলোর পাশাপাশি বিদ্রোহী ও বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিগত বছরগুলোতে প্রায়ই অর্থসহায়তা দেওয়া হয়েছে। প্রভাব বিস্তারের লক্ষ্যে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতার লড়াইয়ের অংশ হিসেবে এটা করা হয়েছে। খবর ডনের।
এনডিটিভিতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে র-এর সাবেক প্রধান ওই স্বীকারোক্তি দিলেন। ভারতের প্রভাবশালী গোয়েন্দা সংস্থাটির সাবেক কোনো শীর্ষ কর্মকর্তা এই প্রথম এ ধরনের কোনো স্বীকারোক্তি দিলেন।
সাক্ষাৎকারে ভারতের পাল্টা ওই ব্যবস্থার কথা জানানোর পর অমরজিৎ সিং বলেন, এতে বিস্মিত হওয়ার কী আছে? সারা পৃথিবীতেই এই কাজ হচ্ছে।
অমরজিৎ সিং দুলাত বলেন, অর্থ দিয়ে কাউকে কলুষিত করা হত্যা করার চেয়ে অনেক বেশি নৈতিক। তিনি আরও বলেন, ভারত সরকার ‘পাকিস্তানপন্থী’ হিসেবে পরিচিত সৈয়দ আলী শাহ গিলানির মতো অনেককে বিমানের টিকিট, চিকিৎসার খরচ ও সাধারণ খরচের জন্য অর্থ দিয়েছে।
কাশ্মীর: দ্য বাজপেয়ি ইয়ারস নামের একটি বিতর্কিত স্মৃতিচারণামূলক বই প্রকাশের প্রাক্কালে এনডিটিভিকে ওই সাক্ষাৎকার দেন অমরজিৎ সিং।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0